২১ ব্যবসায়ীকে বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করায় দণ্ড

ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ হওয়ায় দেশব্যাপী দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি করছেন ২০-৩০ টাকা বেশি দামে। আবার অনেক ব্যবসায়ী কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করতে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে পেঁয়াজ মজুদ করছেন। এতে বিপাকে পড়েছেন ক্রেতারা।

হঠাৎ পেঁয়াজের দাম চড়ে যাওয়ায় তা নিয়ন্ত্রণে মাঠে নেমেছে বিভিন্ন জেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার গাজীপুর, লক্ষ্মীপুর, গাইবান্ধা, জামালপুর ও যশোর জেলার বিভিন্ন বাজারে অভিযান চালিয়ে ২১ ব্যবসায়ীকে জরিমানা করার খবরও পাওয়া গেছে। বাংলাদেশ জার্নালের প্রতিবেদকদের পাঠানো প্রতিবেদন নিম্নে তুলে ধরা হলো-

গাজীপুর: গাজীপুরের বিভিন্ন বাজারে দিনব্যাপী অভিযান চালিয়ে কাপাসিয়া ও কালীগঞ্জ বাজারে ৮ দোকান মালিককে ২৬ হাজার টাকা জরিমানা করেছে উপজেলা প্রসাশন।

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুরে পেঁয়াজ কেনার দর দেখাতে না পারায় বেশি দামে বিক্রির অভিযোগে দুইটি আড়তের মালিককে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। লক্ষ্মীপুর শহরের প্রধান বাজারে অভিযান চালিয়ে এ দুই আড়তদারকে এ সাজা দেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু ওয়াদুদ।

গাইবান্ধা: বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করায় গাইবান্ধা সদর ও সাদুল্লাপুর উপজেলার ছয় ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ২৮ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। মঙ্গলবার অভিযান পরিচালনা করে এ জরিমানা আদায় করেন গাইবান্ধা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. আবদুস ছালাম।

জামালপুর: অতিরিক্ত দামে পেঁয়াজ বেচার অবিযোগে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ পৌর বাজারের দুই ব্যবসায়ীকে ৩৩ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

যশোর: বেনাপোলে বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রির অভিযোগে তিন ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। শার্শা উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পুলক কুমার মন্ডল ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক হিসেবে এ তিনজনের থেকে ৩০ হাজার টাকা আদায় করেন।

চস/আজহার

শেয়ার করুন

The Post Viewed By: 48 People

Chattogram Somoy

চট্টগ্রাম থেকে পরিচালিত চট্টগ্রাম সময় একটি আধুনিক নিউজ পোর্টাল। ২৪ ঘন্টা খবরের সন্ধানে ছুটে চলা একদল সংবাদদাতা নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৯ এর জুলাইয়ে। কোনো একটা নির্দিষ্ট দিক নয়, চট্টগ্রাম সময় কাজ করছে প্রতিটা দিক নিয়ে। আমাদের ভবিষ্যৎ পথচলায় আপনাদের সাথী হিসেবে পেতে চাই।