সাংবাদিক গোলাম সরোয়ারকে অক্ষত অবস্থায় ফিরিয়ে দিতে ক্যাব চট্টগ্রামের বিবৃতি

38

আজকের সূর্যোদয় চট্টগ্রাম ব্যুরোর স্টাফ রিপোর্টার, সিটিজি নিউজ বিডি ডট কমের নির্বাহী সম্পাদক ও প্রকাশক, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য, চন্দনাইশ মিডিয়া ক্লাবের কোষাধ্যক্ষ গোলাম সরোয়ার বিগত ২৯ অক্টোবর ২০২০ সকাল ৯টায় নগরীর ব্যাটারী গলির বাসা থেকে বের হবার পর নিখোঁজ হন। আজকের সূর্যোদয়ের সহকারী সম্পাদক জুবায়ের সিদ্দিকী কোতোয়ালী থানায় জিডি (জিডি ২২৩৩) করলেও আজ পর্যন্ত তাকে উদ্ধারে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কার্যকর অগগ্রতি না থাকায় গভীর উদ্বেগ ও হতাশ প্রকাশ করেছেন কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) চট্টগ্রাম নগর ও বিভাগীয় নেতৃবৃন্দ।

শনিবার গণমাধ্যমে প্রেরিত বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেছেন ক্যাব কেন্দ্রিয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এস এম নাজের হোসাইন, ক্যাব চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাধারন সম্পাদক কাজী ইকবাল বাহার ছাবেরী, ক্যাব মহানগরের সভাপতি জেসমিন সুলতানা পারু, সাধারণ সম্পাদক অজয় মিত্র শংকু, যুগ্ন সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম ও ক্যাব চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল মান্নান প্রমুখ।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, সাংবাদিক গোলাম সরোয়ারের এভাবে নিখোঁজ হওয়া ও তার সন্ধানে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার তাৎক্ষনিক উদ্যোগ ও অগ্রগতি না থাকা মুক্ত গণমাধ্যম ও বাক স্বাধীনতার উপর হুমকি। গণমাধ্যমকর্মীরা সদা এ ধরনের ঝুঁকির মাঝে দায়িত্বপালন করে থাকেন। কিন্তু সরকার, আইন প্রয়োগকারী কর্তৃপক্ষ ও মালিক পক্ষ তাদের যথাযথ নিরাপত্তা বিধানে সক্ষম না হলে মুক্ত গণমাধ্যম ও অসহায়-নির্যাতিত মানুষের তথ্য তুলে ধরতে গণমাধ্যম কর্মীদের সাহসী ভূমিকা কঠোর ভাবে বাধাগ্রস্থ হবে। সাংবাদিক গোলাম সরোয়ার নিখোঁজ হলে তার পরিবার ও সহকর্মীরা উদ্বিগ্ন এবং অক্ষত অবস্থায় ফিরে আসার প্রতিক্ষায় প্রহর গুনছে।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরও বলেন ঢাকায় সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের পুত্র গ্রেফতার হবার পর গণমাধ্যমে যে সমস্ত অপকর্মের খবর বের হয়ে আসছে তাতে দেশে আইনের যথাযথ প্রয়োগ নিয়ে অনেকে সন্দেহ দানা বাঁধছে। কারন আইন প্রয়োগকারী সংস্থা, সরকারের উর্ধ্বতন মহলের নাগের ডগায় হাজী সেলিম ও তার পুত্র সরকারী জমি, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ব্যাংক, প্রতিবন্ধী বধির সংস্থাসহ অনেকের সম্পদ দখল করলেও আইন সেখানে কোন প্রতিকার দিতে পারে নি। তার বিরুদ্ধে বিপুল সংখ্যক মামলা থাকলেও নির্বাচন কমিশন ও দুদক তাকে কোন ভাবেই আটকাতে পারে নি। যা শুধু দুঃখজনক নয় আইনের শাসন ও ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে কালো অধ্যায়। তাই নাগরিকের জান-মালের নিরাপত্তা বিধানে সরকার সকল কিছুর উর্ধ্বে উঠে দ্রুত ব্যবস্থা নিবে এটা প্রত্যাশা করে। নেতৃবৃন্দ দ্রুত সাংবাদিক গোলাম সরোয়ারকে দ্রুত অক্ষত অবস্থায় তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেবার দাবি জানাচ্ছে।

চস/আজহার