কক্সবাজারে হরতাল ডেকেছে ছাত্রলীগের একাংশ

43
কক্সবাজারে হরতাল ডেকেছে ছাত্রলীগের একাংশ
সদ্য ঘোষিত কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের কমিটিকে পকেট কমিটি মন্তব্য করে আগামীকাল বুধবার জেলাব্যাপী সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ডাক দিয়েছে পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা। সোমবার রাতে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা এ কর্মসূচির ঘোষণা দেন।

হরতাল সফল করতে সকল স্তরের নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়েছেন আন্দোলনকারীরা। ছাত্রলীগের গত কমিটির নেতা মারুফ ইবনে হোসাইন জানান, হরতাল ডাকতে বাধ্য হয়েছেন তারা। বলেন, কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সদ্য ঘোষিত কমিটির সভাপতি-সম্পাদক নানা কারণে বিতর্কিত। তারা নেতৃত্বে থাকলে কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের ভবিষ্যৎ রাজনীতি নেতৃত্বশূণ্য হয়ে পড়বে। এ কারণেই তারা ঘোষিত কমিটির পরিবর্তন চান।

প্রায় ৬ বছরের মাথায় সোমবার কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি ঘোষণা দেন কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।

এতে বর্তমান কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইন সভাপতি এবং শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক উপ-সম্পাদক আবু মো. মারুফ আদনান সাধারণ সম্পাদক মনোনীত হয়েছেন।

আরো পড়ুন: মৌলভীবাজারে পদত্যাগ করলেন বিএনপির ৩২ নেতাকর্মী

১৪ সদস্য বিশিষ্ট কমিটিতে সহ-সভাপতি হিসেবে রয়েছেন মো. মইন উদ্দিন, কাইসার উল আলম মুন্না চৌধুরী, বোরহান উদ্দিন খোকন ও নরিমা জাহান। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে আনোয়ার হোসেন, শাখাওয়াত হোসেন, সাজ্জাদুল হক ও মো. শওকত হোসেন। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে চারজন রাখা হয়েছে। তারা হলেন- ওয়াসিফ কবির, কামারুজ্জামান হিরু, এহসানুল হক মিলন ও গাজী নাজমুল হক।

এদিকে, এই কমিটি ঘোষণার পরপরই বিক্ষোভ করেন পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা। সোমবার সন্ধ্যায় কক্সবাজার শহরে টায়ার জ্বালিয়ে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ মিছিল করে তারা। ঘোষিত কমিটিকে অবৈধ ও অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছেন কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সদ্য বিদায়ী সভাপতি ইশতিয়াক আহমেদ জয় ও সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) মোর্শেদ হোসাইন তানিমও।

চস/স