রাস্তায় আড্ডা, ৫০০ বার লিখতে হলো ‘আমি দুঃখিত’

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সবাইকে ঘরে থাকার পরামর্শ দেওয়া হলেও কিছু তরুণদের কোনোভাবেই আটকে রাখা যাচ্ছে না। সুযোগ পেলেই তারা রাস্তায় বেরিয়ে আড্ডাবাজি করছেন।

পুলিশ এলে দৌঁড়ে পালিয়ে যাওয়া আর চলে গেলে আবারও রাস্তায়। কোনো অনুরোধেই যখন কাজ হচ্ছিল না তখন ভিন্নপথে হাঁটল চট্টগ্রামের পুলিশ।

আড্ডারত তরুণদের ধরে সাদা কাগজ আর কলম হাতে দিয়ে রাস্তায় বসিয়ে দেওয়া হয়। রাস্তায় আড্ডাবাজির সাজা হিসেবে তাদের ৫০০ বার করে লিখতে হলো ‘আমি দুঃখিত’।

আরো পড়ুন: ছয় চিকিৎসকসহ ভৈরবে আক্রান্ত আরো ২১ জন

চট্টগ্রাম নগরীর সিআরবি এলাকায় আড্ডাবাজ এসব তরুণদের এই অভিনব শাস্তির ছবি ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

আজ সোমবার বিকেলে নগরীর সিআরবি শিরীষ তলায় আড্ডাবাজ তরুণদের এ শাস্তি দেন নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (কোতোয়ালী জোন) নোবেল চাকমা। এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বিকেল ৩টা থেকে ৫টা পর্যন্ত সিআরবি এলাকায় ফাঁড়ি ইনচার্জকে সাথে নিয়ে চেক পোস্ট করার সময় অনেক উঠতি বয়সী তরুণকে অযথা ঘোরাঘুরি করতে দেখেছিলেন। তাদের যাকেই জিজ্ঞেস করছি কেন বের হয়েছে তাদের উত্তর একটা… সরি। সেজন্য ফাঁড়ি থেকে কাগজ কলম এনে তাদের ৫০০ বার করে লিখে দিতে বলেছি “আমি দুঃখিত” বাক্যটি।’

পুলিশের এ কর্মকর্তা বলেন, ‘যে লিখতে পারছে না তাকে ৫০০ বার “আমি দুঃখিত” বাক্যটি বলতে হয়েছে। পরবর্তীতে তারা যেন অকারণে বাইরে বের হলে কথাটি মনে থাকে।’

নোবেল চাকমা আরও বলেন, ‘বিভিন্নভাবে সচেতনতার প্রচারণা চালানো হলেও উঠতি বয়সী তরুণদের বাসায় রাখা যাচ্ছে না। তারা অকারণে ঘুরে বেড়ায়। সেজন্য তাদের অন্য কোনো শাস্তি না দিয়ে দুঃখিত লিখিয়ে নিয়েছি।’

চস/সোহাগ

শেয়ার করুন

The Post Viewed By: 78 People

Chattogram Somoy

চট্টগ্রাম থেকে পরিচালিত চট্টগ্রাম সময় একটি আধুনিক নিউজ পোর্টাল। ২৪ ঘন্টা খবরের সন্ধানে ছুটে চলা একদল সংবাদদাতা নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৯ এর জুলাইয়ে। কোনো একটা নির্দিষ্ট দিক নয়, চট্টগ্রাম সময় কাজ করছে প্রতিটা দিক নিয়ে। আমাদের ভবিষ্যৎ পথচলায় আপনাদের সাথী হিসেবে পেতে চাই।

One thought on “রাস্তায় আড্ডা, ৫০০ বার লিখতে হলো ‘আমি দুঃখিত’

Comments are closed.