২৫ বছরের ‘বিজ্ঞ প্রতারক’ আদালতে ধরা পড়লো

চট্টগ্রাম আদালত পাড়ায় মাঝে মধ্যে সক্রিয় হয় ভুয়া আইনজীবীরা। এসব প্রতারক ধরতে ‘টাউট নির্মূল কমিটি’ গঠন করে চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতি। মাঝে মধ্যে দুই একজন টাউট ধরা পড়লেও এবার ধরা পড়লো ‘বিজ্ঞ প্রতারক’।

অন্যের আইডি নম্বর ব্যবহার করে ২৫ বছর ধরে রতন কুমার দাশ নামের এই প্রতারক নিজেকে আইনজীবি পরিচয়ে আদালত পাড়ায় কাজ করে যাচ্ছিলো৷ তার নামের আগে যুক্ত করেছে উপাধ্যক্ষ পরিচয়৷ এছাড়া একটি মানবাধিকার সংস্থার প্রেসিডেস্ট পদ শোভা পাচ্ছে রতনের ভিজিটিং কার্ডে৷

সোমবার (৩১ আগস্ট) আইনজীবী পরিচয়ে প্রতারণাকারী রতন কুমার দাশ (৬৪) নামে ওই টাউটকে আটক করা হয়। রতন কুমার দাশ আকবরশাহ্‌ থানার মুকন্দ কুমার দাশের ছেলে।

চট্টগ্রাম আইনজীবী সমিতির সদস্য ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাড. কে এম সাইফুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, চট্টগ্রাম জজ কোর্টে ২৫ বছর ধরে অন্যের আইডি নম্বর ব্যবহার করে ওকালতি করে আসছিলেন রতন কুমার দাশ। তিনি নিজেকে জ্যেষ্ঠ আইনজীবী পরিচয় দিতেন। টাউট উচ্ছেদ কমিটি তাকে আজ ধরেছে। তার বিরুদ্ধে সমিতির পক্ষ থেকে মামলা করা হয়েছে।

আরো পড়ুন: করোনা: চট্টগ্রামে আক্রান্ত আরও ৫৮ জন

জানা গেছে, প্রতারক রতন কুমার দাশ নিজেকে উপাধাক্ষ্য পরিচয় দিতেন। এছাড়া নিজেকে বাংলাদেশ মানবাধিকার অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্টও দাবি করতেন। চট্টগ্রাম আইনজীবী সমিতির সদস্য অ্যাড. রতন কান্তি দাশের নাম ও আইনজীবী পরিচিতি নম্বর (লিন) ব্যবহার করে নিজেকে আইনজীবী পরিচয় দিয়ে মামলা গ্রহণ ও পরিচালনা করে আসছিলেন রতন কুমার দাশ।

জিজ্ঞাসাবাদে অভিজ্ঞ প্রতারক রতন স্বীকার করে সে এতোদিন বারের একজন বিজ্ঞ সিনিয়র আইনজীবীর লিন নম্বর ব্যবহার করতেন।

চস/স

শেয়ার করুন

The Post Viewed By: 54 People

Chattogram Somoy

চট্টগ্রাম থেকে পরিচালিত চট্টগ্রাম সময় একটি আধুনিক নিউজ পোর্টাল। ২৪ ঘন্টা খবরের সন্ধানে ছুটে চলা একদল সংবাদদাতা নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৯ এর জুলাইয়ে। কোনো একটা নির্দিষ্ট দিক নয়, চট্টগ্রাম সময় কাজ করছে প্রতিটা দিক নিয়ে। আমাদের ভবিষ্যৎ পথচলায় আপনাদের সাথী হিসেবে পেতে চাই।

One thought on “২৫ বছরের ‘বিজ্ঞ প্রতারক’ আদালতে ধরা পড়লো

Comments are closed.