আত্মহত্যা করেছেন অভিনেত্রী লরেন

আত্মহত্যা করেছেন তরুণ মডেল ও অভিনেত্রী লরেন মেন্ডেস। বিনোদন অঙ্গনে তাঁর পথচলা বেশি দিনের নয়। এরই মধ্যে অজানা অভিমানে আত্মঘাতী হলেন তিনি।

আজ রোববার (৩০ আগস্ট) সকালে নিজ বাসায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন লরেন। তবে কী কারণে আত্মঘাতী হলেন, এ বিষয়ে কিছুই জানা যায়নি। লরেনের আত্মহত্যার খবর এনটিভি অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন নাট্যনির্মাতা হাবীব শাকিল।

লরেনের মৃত্যুতে শোকগ্রস্ত নির্মাতা হাবীব শাকিল। তিনি বলেন, ‘এই কিছুদিন আগে একটি কাজ নিয়ে লরেনের সঙ্গে ফেসবুকে কথা হয়েছিল। আজ শুনলাম, লরেন আত্মহত্যা করেছে। আমরা বোধহয় সন্তানদের জীবনদর্শন সম্পর্কে জ্ঞান দেই না। হতাশা থেকে অনেক তরুণই আত্মহত্যা করছে। সিস্টেমটাই যেন এমন হয়ে যাচ্ছে।’

নিজের ফেসবুক ওয়ালে লরেনের উদ্দেশে একটি শোকবার্তাও দিয়েছেন হাবীব শাকিল। লেখেন, লরেন মেন্ডেস, তোমার কীসের এত তাড়া ছিল? তোমার জীবনটাই বা কত দূর গিয়েছিল? এত তাড়াতাড়ি জীবনের অর্থ জেনে গিয়েছিলে যে জীবন সম্পর্কে আগ্রহ হারিয়ে গেল? তোমার বন্ধুরা কারা? তারাও কি তোমার মতনই জীবনের সবটুকু জেনে গিয়েছে? আচ্ছা খুব জানতে ইচ্ছে করছে কারা তোমার সাথে রাত-দিন জীবনের ছোট এই রাস্তায় হেঁটেছিল? তোমাকে এত প্রশ্ন করছি কেন? উত্তর তো আমরা সবাই জেনে ঘুমিয়ে আছি। জেগে জেগে ঘুমিয়ে থাকার অভ্যাসটা আমাদের সিস্টেমের মধ্যেই আছে আর এত এত প্রশ্নের সমাধানও আমাদের শিক্ষাব্যবস্থা থেকে শুরু করে রাষ্ট্রের সব সিস্টেমের মধ্যেই লুকোচুরি খেলছে। তুমি ক্ষমা করে দিও এই অবুঝ সিস্টেমকে। ভালো থেক ওপারে।

লরেনের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন বিশিষ্ট নাট্যনির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী। প্রয়াতের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘জানি না লরেন তোমার কী কষ্ট ছিল, এত কম সময়ে জীবনের কী এমন মানে বুঝে ফেললে! যেখানেই থাকো, ভালো থেকো।’

শোবিজে লরেনের ক্যারিয়ার মডেলিং দিয়ে শুরু। পরে পরিচিতি পেয়েছেন বিজ্ঞাপনচিত্রে। বেশ কয়েকটি মিউজিক ভিডিওতে দেখা গেছে তাঁকে। ‘তোমার পিছু ছাড়ব না’ শিরোনামের একটি গানের মডেল হয়ে আলোচনায় আসেন। লরেনকে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‌‘অমর প্রেম’-এ দেখা গেছে।

চস/আজহার

শেয়ার করুন

The Post Viewed By: 109 People

Chattogram Somoy

চট্টগ্রাম থেকে পরিচালিত চট্টগ্রাম সময় একটি আধুনিক নিউজ পোর্টাল। ২৪ ঘন্টা খবরের সন্ধানে ছুটে চলা একদল সংবাদদাতা নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৯ এর জুলাইয়ে। কোনো একটা নির্দিষ্ট দিক নয়, চট্টগ্রাম সময় কাজ করছে প্রতিটা দিক নিয়ে। আমাদের ভবিষ্যৎ পথচলায় আপনাদের সাথী হিসেবে পেতে চাই।