গুণী অভিনেতা কে এস ফিরোজ আর নেই

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে অভিনেতা কে এস ফিরোজ মৃ্ত্যুবরণ করেছেন। বুধবার (৯ সেপ্টেম্বর)ভোর ৬টা ২০ মিনিটে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) তার মৃত্যু হয় বলে তার মেয়ে নাদিয়া ফিরোজ জানিয়েছেন।

তিনি জানান, বাবা নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত ছিলেন। ২৮ অগাস্ট তার করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। অক্সিজেন স্যাচুরেশন কমতে থাকায় ৩০ অগাস্ট তাকে সিএমএইচে নেওয়া হয়েছিল।

“চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুইবার বাবার স্ট্রোক হয়। বুধবার দ্বিতীয় স্ট্রোকে বাবার মৃত্যু হয়েছে।”

সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর খন্দকার শাহেদ উদ্দিন ফিরোজকে তার শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী বুধবার বাদ জোহর বনানী সেনানিবাস কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে নাদিয়া জানান।

৭৬ বছর বয়সী কে এস ফিরোজ মঞ্চ এবং ছোট ও বড় পর্দায় যুগপৎ অভিনয় করেছেন। তিনি নাট্যদল থিয়েটারের জ্যেষ্ঠ সদস্য ও সভাপতি ছিলেন।

আরো পড়ুন: ফেসবুকে বাংলাদেশের প্রতিনিধি হলেন দিয়া

নাট্যদল ‘থিয়েটার’র সঙ্গে যুক্ত হয়ে অভিনয়ে কে এস ফিরোজের পথচলা শুরু। এই দলের হয়ে তিনি অভিনয় করেছেন ‘সাত ঘাটের কানাকড়ি’, কিংলিয়ার’ ও ‘রাক্ষসী’ নাটকে। এছাড়া তিনি টেলিভিশন নাটকের জনপ্রিয় মুখ। বহু একক নাটক, ধারাবাহিক ও টেলিফিল্মে তাকে অভিনয় করতে দেখা গেছে। বহু বিজ্ঞাপনও করেছেন।

বেশকিছু সিনেমায় অভিনয় করতে দেখা গেছে তাকে। তার প্রথম সিনেমা ‘লাওয়ারিশ’। এছাড়া কে এস ফিরোজ অভিনয় করেছেন আবু সাইয়ীদের ‘শঙ্খনাদ’, ‘বাশি’, মুরাদ পারভেজের ‘চন্দ্রগ্রহণ’ ও ‘বৃহন্নলা’র মতো প্রশংসিত সিনেমায়।

চস/স

শেয়ার করুন

The Post Viewed By: 65 People

Chattogram Somoy

চট্টগ্রাম থেকে পরিচালিত চট্টগ্রাম সময় একটি আধুনিক নিউজ পোর্টাল। ২৪ ঘন্টা খবরের সন্ধানে ছুটে চলা একদল সংবাদদাতা নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৯ এর জুলাইয়ে। কোনো একটা নির্দিষ্ট দিক নয়, চট্টগ্রাম সময় কাজ করছে প্রতিটা দিক নিয়ে। আমাদের ভবিষ্যৎ পথচলায় আপনাদের সাথী হিসেবে পেতে চাই।

One thought on “গুণী অভিনেতা কে এস ফিরোজ আর নেই

Comments are closed.