ইডেন টেস্টে ঘণ্টা বাজাবেন শেখ হাসিনা ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইডেন গার্ডনসের ঐতিহ্যবাহী ঘণ্টা বাজিয়ে দিবারাত্রির টেস্ট খেলার উদ্বোধন করবেন। ২২ নভেম্বর ইডেনে প্রথমবারের মতো দিবারাত্রির টেস্টে ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

শেখ হাসিনা ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘণ্টা বাজানোর পর শুরু হবে প্রথম দিনের খেলা। ইডেনে ঘণ্টা বাজিয়ে খেলা শুরু করা মাঠটির ঐতিহ্যের অংশ। ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গলের (সিএবি) সচিব অভিষেক ডালমিয়া সংবাদমাধ্যমকে খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

বাংলাদেশের ও ভারতের ইতিহাসে এটাই হবে প্রথম দিবারাত্রির টেস্ট। ঐতিহাসিক এ মুহূর্তকে স্মরণীয় করে রাখতে নানা রকম আয়োজন করছে সিএবি। পশ্চিমবঙ্গের গভর্নর জয়দীপ ধ্যানকারকেও মাঠে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। শুধু তা–ই নয়, ইডেন গার্ডেনসের এ টেস্টে বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন শিল্পী রুনা লায়লাকেও আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। ম্যাচ শুরুর আগে গান গাইবেন এই কিংবদন্তি।

ইডেন গার্ডেনসে ঘণ্টা বাজাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এর মধ্য দিয়ে শুরু হবে ভারত-বাংলাদেশ প্রথম দিবারাত্রির টেস্ট

আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে আছেন ভারতের কিংবদন্তি দাবাড়ু বিশ্বনাথ আনন্দ, টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা, ব্যাডমিন্টনের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন পি ভি সিন্ধু, ছয়বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন মুষ্টিযোদ্ধা মেরি কম এবং ভারতের একমাত্র অলিম্পিক সোনাজয়ী অভিনব বিন্দ্রা। কিংবদন্তি ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকারকেও আনার চেষ্টা করছেন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী।

২০০০ সালে ভারতের বিপক্ষে নিজেদের ইতিহাসের প্রথম টেস্টে বাংলাদেশ যে দল খেলিয়েছিল সে দলের সবাইকেও আমন্ত্রণ জানিয়েছে সিএবি। টেস্টের প্রথম দিনে ৪০ মিনিটের নৈশভোজ বিরতির সময় এইচআইভি পজিটিভ শিশুদেরও খেলার সুযোগ করে দেবে তারা। এ ছাড়াও টেস্টে প্রথম দিনে আকাশে হেলিকপ্টার থেকে স্কাইডাইভার ট্রফি নিয়ে নামবেন, এমন চমকপ্রদ কিছু দেখানোর পরিকল্পনাও করছে সিএবি।

চস/আজহার

শেয়ার করুন

The Post Viewed By: 88 People

Chattogram Somoy

চট্টগ্রাম থেকে পরিচালিত চট্টগ্রাম সময় একটি আধুনিক নিউজ পোর্টাল। ২৪ ঘন্টা খবরের সন্ধানে ছুটে চলা একদল সংবাদদাতা নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৯ এর জুলাইয়ে। কোনো একটা নির্দিষ্ট দিক নয়, চট্টগ্রাম সময় কাজ করছে প্রতিটা দিক নিয়ে। আমাদের ভবিষ্যৎ পথচলায় আপনাদের সাথী হিসেবে পেতে চাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *