পটিয়ায় জাপার সম্মেলনে প্রতিদ্বন্দ্বী গ্রুপের হামলা সমাবেশ পণ্ড

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা জাপার আহ্বায়ক নুরুচ্ছফা সরকার সমর্থিত নেতাকর্মীদের পূর্ব নির্ধারিত সম্মেলনে হামলা চালিয়েছে কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান সামশুল মাস্টার সমর্থিতরা। গতকাল শনিবার বেলা ১১টায় শান্তির হাটের একটি কমিউনিটি সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে। সামশুল মাস্টার সমর্থিতরা ধাওয়া দিয়ে নুরুচ্ছফা সরকার সমর্থিতদের কমিউনিটি সেন্টার থেকে বের করে দেয়। এতে সমাবেশ পণ্ড হয়ে যায়।
জানা যায়, গতকাল শনিবার সকাল ১০টায় শান্তিরহাটস্থ একটি কমিউনিটি সেন্টারে বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে দলীয় নেতাকর্মীরা সমাবেশের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এমন সময় কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুল আলম মাস্টার সমর্থিত নেতাকর্মীরা কমিউনিটি সেন্টারে জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক নুরুচ্ছফা সরকার সমর্থিত নেতাকর্মীদের ধাওয়া করে। ঘটনার খবর পেয়ে কালারপুল পুলিশ ফাঁড়ির একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে শামসুল আলম মাস্টার সমর্থিত নেতাকর্মীরা সটকে পড়ে।
এদিকে দুপুর ১২টার দিকে নুরুচ্ছফা সরকার সমর্থিতরা সংঘটিত হয়ে তার নেতৃত্বে তাৎক্ষণিক একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলে শামসু মাস্টারের বিরুদ্ধে নেতাকর্মীরা বিভিন্ন স্লোগান দেয়। মিছিলটি চট্টগ্রাম-কঙবাজার মহাসড়ক প্রদক্ষিণ করে শান্তির হাট চত্বরে এসে সমাবেশে মিলিত হয়। উপজেলা জাপার আহ্বায়ক আবদুল হান্নান চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও নুর হোসেন সওদাগরের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা জাপার আহ্বায়ক নুরুচ্ছফা সরকার, জেলা জাপার সদস্য সচিব আবদুর রব চৌধুরী টিপু, যুগ্ম আহ্বায়ক বোরহান উদ্দিন ফারুকী, মাহমুদুল হক বেঙ্গল, কাজী মুজিবুর রহমান, সোনা মিয়া, আনোয়ারা উপজেলা সভাপতি মোহাম্মদ সেলিম, সদস্য সচিব হারুনুর রশিদ প্রমুখ।
নুরুচ্ছফা সরকার তার বক্তব্যে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, উপজেলা জাতীয় পার্টির পূর্বঘোষিত সম্মেলনের শামসুল আলম মাস্টারের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের কিছু সন্ত্রাসী বাহিনী দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আমাদের নেতাকর্মীদের উপর হামলা চালিয়েছে। সামশু মাস্টারের দলীয় শৃঙ্খলা বিরোধী এ ধরনের কর্মকাণ্ডের বিষয়ে দলীয় চেয়ারম্যান ও মহাসচিবকে অবহিত করা হবে।

চস/আজহার

শেয়ার করুন

The Post Viewed By: 45 People

Chattogram Somoy

চট্টগ্রাম থেকে পরিচালিত চট্টগ্রাম সময় একটি আধুনিক নিউজ পোর্টাল। ২৪ ঘন্টা খবরের সন্ধানে ছুটে চলা একদল সংবাদদাতা নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৯ এর জুলাইয়ে। কোনো একটা নির্দিষ্ট দিক নয়, চট্টগ্রাম সময় কাজ করছে প্রতিটা দিক নিয়ে। আমাদের ভবিষ্যৎ পথচলায় আপনাদের সাথী হিসেবে পেতে চাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *