একই পরিবারের ৬ জনসহ সড়কে ঝরল ১৪ জন

দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় ১৪ জন নিহত ও ১২ জন আহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৬ জনসহ ৮ জন প্রাণ হারায়। এছাড়া গোপালগঞ্জে ২, ফুলপুরে ২, পীরগঞ্জে ১ ও টাঙ্গাইলে ১ জন প্রাণ হারায়।

কুমিল্লা : গ্রামের বাড়িতে পরিবার ও স্বজনদের সঙ্গে ঈদের ছুটি কাটিয়ে কর্মস্থলে ফেরার পথে কুমিল্লায় বাস চাপায় প্রাণ হারিয়েছে সিএনজি চালিত অটোরিকশার যাত্রী একই পরিবারের ৬ জনসহ ৮ জন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে বাসের অন্তত ৫ যাত্রী রোববার দুপুরে কুমিল্লা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের জেলার লালমাই উপজেলার বাগমারা জামতলী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আহত ওই পরিবারের একমাত্র জীবিত সদস্য রিফাতকে (১০) উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। একই পরিবারের ৬ জনের করুণ মৃত্যুর খবরে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা জেলার লাকসামগামী তিশা পরিবহানের একটি বাস জেলার লালমাই উপজেলার জামতলীতে পৌঁছার পর বিপরীত দিক থেকে আসা কুমিল্লা শহরগামী সিএনজি চালিত একটি অটোরিকশাকে চাপা দেয়। এতে অতিরিক্ত যাত্রীবাহী ওই সিএনজি অটোরিকশাটি দুমড়ে মুচড়ে যায়। এ সময় ঘটনাস্থলে ও হাসপাতালে নেয়ার পর একই পরিবারের ৬ জনসহ ৮ জনের মৃত্যু হয়। নিহতরা হচ্ছে, কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার ঘোড়াময়দান গ্রামের মৃত আবদুর জব্বারের ছেলে জসিম উদ্দিন (৪৫), জসিম উদ্দিনের মা সকিনা বেগম (৭০), স্ত্রী সেলিনা বেগম (৪০), ছেলে শিপন (২৩), ছেলে হৃদয় (১৫), মেয়ে নিপু আক্তার (১৩) ও হোটেল বয় একই উপজেলার করপাতি গ্রামের হোসেন মিয়ার ছেলে সায়মন (১৫) এবং সিএনজি চালিত অটোরিকশার চালক মৃত জিতু মিয়ার ছেলে জামাল হোসেন (৩৫)। জসিমের পরিবারের একমাত্র জীবিত সদস্য রিফাতকে (১০) আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ করা হয়। নিহত জসিম উদ্দিনের ভাই মো. মহসিন জানান, জসিম উদ্দিন, তার মা, স্ত্রী এবং ছেলে-মেয়ে নিয়ে কুমিল্লা নগরীর গাংচরে ভাড়া বাসায় থাকতেন এবং সে পাশের গোয়ালপট্টি এলাকায় হোটেল ব্যবসা করতো। কোরবানির ঈদের ছুটিতে সপরিবারে বাড়িতে আসেন। ঈদের ছুটি শেষে সবাই মিলে সিএনজি অটোরিকশাযোগে কুমিল্লা যাচ্ছিলেন। ঘটনাস্থলে গিয়ে অন্যদের সঙ্গে ভাইয়ের মরদেহ দেখে অনেকটা নির্বাক হয়ে পড়েন নিহত সিএনজি চালক জামাল হোসেনের ভাই কামাল হোসেনও। এদিকে এ দুর্ঘটনার খবর পেয়ে কুমিল্লার পুলিশ সুপার সৈয়দ মো. নুরুল ইসলাম বিপিএম (বার) পিপিএম, হাইওয়ে কুমিল্লা অঞ্চলের পুলিশ সুপার মো. নজরুল ইসলাম ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ তদারকি করেন। একই পরিবারের ৬ সদস্য দুর্ঘটনায় নিহতের খবরে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। কুমিল্লার পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম বিপিএম (বার) পিপিএম জানান, বাস চালকের ভুলের কারণে মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

গোপালগঞ্জ : গোপালগঞ্জে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এক বৃদ্ধসহ ২ জন নিহত হয়েছে। রোববার (১৮ আগস্ট) দুপুরে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের মুকসুদপুর উপজেলার রাগদি ইউনিয়নের ডোমরাকান্দি ও সকালে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের কাশিয়ানী উপজেলার রাতইল ধূসর ব্রিজের কাছে এ দুর্ঘটনা ২টি ঘটে। নিহতরা হলেন মুকসুদপুর উপজেলার ডোমরাকান্দি গ্রামের নুরুল মোড়ল (৭০) ও কাশিয়ানী উপজেলার বরাশুর গ্রামের তারা শরীফের ছেলে হাবিব শরীফ (৪০)। ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ওসি আতাউর রহমান জানান, নুরুল মোড়ল বাড়ির সামনে রাস্তা পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন। বরিশাল থেকে ঢাকাগামী সুগন্ধা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস নুরল মোড়লকে চাপা দিলে তিনি ঘটনাস্থলে মারা যান। কাশিয়ানী থানার ওসি মো. আজিজুর রহমান জানান, হাবিব শরীফ ও এনায়েত হোসেন মোটরসাইকেলে করে কাশিয়ানী উপজেলার ভাটিপাড়া থেকে গোপালগঞ্জ যাচ্ছিলেন। খুলনা থেকে ঢাকাগামী একটি বাস তাদের বহনকারী মোটরসাইকেলটিকে রাতইলে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে হাবিব শরীফ মারা যান ও এনায়েত হোসেন আহত হন।

ফুলপুর (ময়মনসিংহ) : ঢাকা-শেরপুর মহাসড়কের ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর উপজেলায় রোববার আবারও সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেছে। এতে পৃথক দুর্ঘটনায় এক স্কুলছাত্র এক গৃহবধূসহ ২ জন নিহত হয়েছে ও একই পরিবারের ৪ জনসহ আহত হয়েছে ৬ জন। জানা যায় রোববার দুপুরে ঢাকা-শেরপুর মহাসড়কের হোসেনপুর মড়লবাড়ী এলাকায় শেরপুরগামী সোনার বাংলা যাত্রীবাহী বাস ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে একই পরিবারের একজন নিহত ও ৪ জনসহ ৫ জন আহত হয়েছে। নালিতাবাড়ী থেকে সিএনজিযোগে ফুলপুর আসার পথে শেরপুরগামী যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে আহত হয় তারা। ঘটনাস্থলেই গুরুতর আহত স্কুলছাত্র সায়েম মারা যান। আহতদের উদ্ধার করে ফুলপুর ও ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। এর আগে একই দিন সকালে ফুলপুর হাসপাতালসংলগ্ন স্থানে মাইক্রোবাস ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে রেজিয়া খাতুন (৫০) এক গৃহবধূ নিহত হয়। সে একটি সিএনজিতে স্বামীর বাড়ি থেকে বাবার বাড়িতে যাচ্ছিলেন। পথচারীরা তাকে উদ্ধার করে ফুলপুর স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে রেফার করলে সেখানে সকাল ১১টায় মারা যান তিনি। ফুলপুর থানার ওসি ইমারত হোসেন গাজী সংবাদকে জানান, লাশ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) : ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলায় দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মমিনুল ইসলাম মমিন (২৫) নামে এক মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন সানোয়ার হোসেন নামক একজন মোটরসাইকেল আরোহী। রোববার দুপুর ১২টার সময় পীরগঞ্জ-রানীশংকৈল সড়কের নায়ারণপুর শেখপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পীরগঞ্জ থেকে ব্যক্তিগত কাজ শেষ করে বাড়িতে ফিরছিলেন মমিন ও সানোয়ার। পীরগঞ্জ-রানীশংকৈল সড়কের নায়ারণপুর শেখপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে অপরদিক থেকে আসা একটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে ঘটনাস্থলেই মমিন মারা যায়। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পীরগঞ্জ থানার এসআই সাখাওয়াত হোসেন বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই নিহতের লাশ ও মোটরসাইকেল তার পরিবারের লোকজন নিজের বাড়িতে নিয়ে গেছে ।

টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইলে সড়ক দুর্ঘটনায় আল-আমিন (২০) নামের এক ওয়ার্কশপ কর্মচারী নিহত হয়েছে। রোববার সকালে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের টাঙ্গাইল সদর উপজেলার আশেরপুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। তিনি আশেকপুরে একটি দোকানে ওয়ার্কশপের কর্মচারী হিসেবে কাজ করতেন।

এ ব্যাপারে এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বাসুদেব সিনহা বলেন, রোববার সকালে আল-আমিন পায়ে হেঁটে মহাসড়কের এক পাশ দিয়ে কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে মহাসড়কের আশেকপুর এলাকায় ঢাকাগামী একটি গাড়ি তাকে চাপা দিয়ে চলে যায়। পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

চস/আজহার

শেয়ার করুন

The Post Viewed By: 67 People

Chattogram Somoy

চট্টগ্রাম থেকে পরিচালিত চট্টগ্রাম সময় একটি আধুনিক নিউজ পোর্টাল। ২৪ ঘন্টা খবরের সন্ধানে ছুটে চলা একদল সংবাদদাতা নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৯ এর জুলাইয়ে। কোনো একটা নির্দিষ্ট দিক নয়, চট্টগ্রাম সময় কাজ করছে প্রতিটা দিক নিয়ে। আমাদের ভবিষ্যৎ পথচলায় আপনাদের সাথী হিসেবে পেতে চাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *