ফেনীতে ১৩৭ জন কোয়ারেন্টাইনে

ফেনীতে বিদেশ থেকে আসা ২৬ জন এবং তাদের পারিবার মিলিয়ে মোট ১৩৭ জনকে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ মার্চ) সকালে ফেনী সিভিল সার্জন কার্যালয়ের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা তাহসিন নুর অমি এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, কোয়ারেন্টাইনে থাকা সকলকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখেছে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন ও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

তিনি আরও জানান, কোয়ারেন্টিনে থাকা লোকদের পর্যবেক্ষণ করছেন স্বাস্থ্য বিভাগের স্বাস্থ্যকর্মীরা। এর বাইরে জেলা প্রশাসন এবং স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মেম্বারদেরও দায়িত্ব দেয়া হয়েছে তদারকি করার জন্য। সিভিল পোশাকে পুলিশও কোয়ারেন্টাইনে থাকা লোকজনকে পর্যবেক্ষণ করছেন। তবে কোয়ারেন্টাইনে থাকা লোকজনের সামাজিক নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে তাদের পরিচয় গোপন করা হবে। এসব প্রবাসীদের নাম ঠিকানা সংগ্রহ করে স্বাস্থ্য বিভাগ হতে এদের প্রত্যেককে ১৪ দিন পারিবারিক কোয়ারেন্টিনে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

আরো পড়ুন: ৩১ মার্চ পর্যন্ত সরকারি কর্ম কমিশনের সব পরীক্ষা স্থগিত

এদিকে জেলা প্রশাসন থেকে ফেনী ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ৩০ বেড, ফেনী ট্রমা সেন্টারে ৩০ বেড, সোনাগাজীর মঙ্গলকান্দি ২০ শয্যা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২০ বেডসহ পাঁচটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঁচ বেড করে ২৫ বেড মোট ১০৫ বেডের আইসোলেশন কর্নার করা হয়েছে।

এছাড়া সিভিল সার্জন কার্যালয়ে ২৪ ঘন্টা একটি রেসপন্স টিম নিয়োজিত করা হয়েছে। যে কোন প্রয়োজনে ০১৭৩৩০৬১৩৫৬, ০১৯৫৬৩৭৬৩৮৫, ০১৯৯১৭৯৭৭৮০, ০১৩১২৫২২৬৭৭ নাম্বারে যোগাযোগ করা যাবে।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের আতঙ্কে পরশুরামের বিলোনীয়া স্থলবন্দরে বাংলাদেশি যাত্রীদের ভারতে যাতায়াতসহ আমদানি-রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। পরবর্তী নির্দেশ দেয়া পর্যন্ত এ নির্দেশনা কার্যকর থাকবে। তবে বাংলাদেশে অবস্থানরত ভারতীয় নাগরিকদের শুধু নিজ দেশে প্রবেশের সুযোগ রয়েছে।

চস/সোহাগ

শেয়ার করুন

The Post Viewed By: 108 People

Chattogram Somoy

চট্টগ্রাম থেকে পরিচালিত চট্টগ্রাম সময় একটি আধুনিক নিউজ পোর্টাল। ২৪ ঘন্টা খবরের সন্ধানে ছুটে চলা একদল সংবাদদাতা নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৯ এর জুলাইয়ে। কোনো একটা নির্দিষ্ট দিক নয়, চট্টগ্রাম সময় কাজ করছে প্রতিটা দিক নিয়ে। আমাদের ভবিষ্যৎ পথচলায় আপনাদের সাথী হিসেবে পেতে চাই।