ফেনীতে মৃত ৩ জনের দেহে করোনা শনাক্ত

89
ফেনীতে মৃত ৩ জনের দেহে করোনা শনাক্ত
ফেনীতে নতুন করে আরও ১৬ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে একজন পুলিশ কর্মকর্তা, স্বাস্থ্যকর্মী ও একই পরিবারের তিনজন রয়েছেন। নতুন শনাক্তদের মধ্যে সোনাগাজী উপজেলায় ২ ও দাগনভূঞা উপজেলার মারা যাওয়া এক ব্যক্তিও আছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২শ ৬৪ জনে।

রোববার (৭ জুন) সকালে সিভিল সার্জন ডা. মো. সাজ্জাদ হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে, নতুন শনাক্ত হওয়া ১৬ জনের মধ্যে দাগনভূঞা উপজেলার ৮ জন, সোনাগাজী উপজেলায় ৭ জন ও পরশুরাম উপজেলায় ১ জন রয়েছেন। সোনাগাজীতে ৭ জনের মধ্যে একজন পুলিশ কর্মকর্তা। তিনি সোনাগাজী মডেল থানায় কর্মরত। বাকিদের মধ্যে তিনজনই একই পরিবারের সদস্য। তারা পৌর শহরের তুলাতুলি এলাকার বাসিন্দা। সাতবারিয়া, চরসাহাভিকারীতে একজন করে আছেন। উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ভাদাদিয়া গ্রামের সাহাব উদ্দিনেরও পজেটিভ এসেছে। দাগনভূঞা উপজেলায় ৮ জনের মধ্যে ২ জন স্বাস্থ্যকর্মী রয়েছেন। এছাড়া পৌরসভায় ২ জন, পূর্বচন্দ্রপুর, ইয়াকুবপুর, রামনগর, সিন্দুরপুরে ১ জন করে রয়েছেন। এদের মধ্যে একজন পরশুরাম উপজেলায় এক যুবকের করোনায় শনাক্ত হয়। তার বাড়ি পৌরসভার উত্তর গুথুমায়।

করোনা পরীক্ষার জন্য শনিবার (৬ জুন) জেলায় সংগৃহীত ১শ ৪৮ জনের নমুনা নোয়াখালীর আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়। ৭৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন করে ১৬ জন আক্রান্ত হয়েছে। এদিকে নতুন করে জেলায় ১ জন সুস্থ হয়েছেন।

আরো পড়ুন: হেলিকপ্টারে সিএমএইচে করোনাক্রান্ত মন্ত্রী বীর বাহাদুর

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যমতে, জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২শ ৪৮ জনে। রোববার পর্যন্ত ২ হাজার ৩শ ৪৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষাগারে পাঠানো হলে ১ হাজার ৯শ ৩৫ জনের প্রতিবেদন আসে। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৬৮ জন। এদের মধ্যে সদরে ২৫ জন, সোনাগাজীতে ৮ জন, ছাগলনাইয়ায় ১৩ জন, দাগনভূঞায় ১০ জন, পরশুরামে ৭ জন ও ফুলগাজীতে ৫ জন।

করোনা শনাক্ত ব্যক্তিদের মধ্যে সদরের ৯২ জন, ছাগলনাইয়ায় ২৭ জন, দাগনভূঞায় ৮৫ জন, সোনাগাজীতে ৩৬ জন, ফুলগাজীতে ১০ জন ও পরশুরামে ৯ জন। অপর ৫ জন পাশ্ববর্তী চট্টগ্রাম, মিরসরাই, চৌদ্দগ্রাম ও সেনবাগের বাসিন্দা। ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নমুনা পরীক্ষা দিয়ে আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ সদস্য, গণমাধ্যমকর্মী রয়েছেন।

চস/সোহাগ