সড়কে ৫৩৪ জনের প্রাণ গেল ফেব্রুয়ারিতে 

বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির সড়ক দুর্ঘটনা মনিটরিং সেলের পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে ৫০৪টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৫৩৪ জন নিহত হয়েছে। এছাড়া ওই মাসে প্রায় এক হাজার একশ ৬৯ জন আহত হয়েছেন।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, রেলপথে ৫৬ দুর্ঘটনায় ৪৮ জন নিহত ও ১৩ জন আহত হয়েছে। নৌ-পথে নয়টি দুর্ঘটনায় ৪০ জন নিহত ও ৫৬ জন আহত এবং ৬৪ জন নিখোঁজ হয়েছেন।
সোমবার সকালে দেশের সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদন বিশ্লেষণ করে এক বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনটি এই প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, জানুয়ারি মাসের তুলনায় ফেব্রুয়ারি মাসে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ দশমিক ৪৫ শতাংশ আহতের হার বাড়লেও সড়কে দুর্ঘটনার ৫ দশমিক ৩৫ শতাংশ ও নিহত ২ দশমিক ৪৩ শতাংশ কমেছে।

২০২০ সালের জানুয়ারি মাসের তুলনায় বিগত ফেব্রুয়ারি মাসে সড়ক-মহাসড়কের উন্নয়নের ফলে যানবাহনের গতি বাড়ার কারণে আঞ্চলিক মহাসড়কে ৩ দশমিক ৪৩ শতাংশ ও ফিডার রোডে ১ দশমিক ৭৪ শতাংশ সড়ক দুর্ঘটনা বাড়লেও জাতীয় মহাসড়কে ২ দশমিক ৮১ শতাংশ সড়ক দুর্ঘটনা কমেছে।

এ মাসে সবচেয়ে বেশি সড়ক দুর্ঘটনা সংগঠিত হয় ১৬ ফেব্রুয়ারি এইদিনে ২৫টি সড়ক দুর্ঘটনায় ২৭ জন নিহত ৪০ জন আহত হয়। সবচেয়ে কম সড়ক দুর্ঘটনা সংগঠিত হয় ২৭ ফেব্রুয়ারি এইদিনে ছয়টি সড়ক দুর্ঘটনায় চারজন নিহত ও পাঁচজন আহত হয়।

সমিতির পর্যবেক্ষণ মতে সড়ক দুর্ঘটনার কারণগুলো, বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালনা, বিপদজনক ওভারটেকিং, রাস্তা-ঘাটের ক্রটি, ফিটনেসবিহীন যানবাহন, যাত্রী ও পথচারীদের অসতর্কতা, চালকের অদক্ষতা, চলন্ত অবস্থায় মোবাইল বা হেডফোন ব্যবহার, মাদকসেবন করে যানবাহন চালানো, রেলক্রসিং ও মহাসড়কে হঠাৎ ফিডার রোড থেকে যানবাহন উঠে আসা, রাস্তায় ফুটপাত না থাকা বা ফুটপাত বেদখলে থাকা, ট্রাফিক আইনের দুর্বল প্রয়োগ ও ছোট যানবাহন বৃদ্ধি।

চস/আজহার

শেয়ার করুন

The Post Viewed By: 131 People

Chattogram Somoy

চট্টগ্রাম থেকে পরিচালিত চট্টগ্রাম সময় একটি আধুনিক নিউজ পোর্টাল। ২৪ ঘন্টা খবরের সন্ধানে ছুটে চলা একদল সংবাদদাতা নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৯ এর জুলাইয়ে। কোনো একটা নির্দিষ্ট দিক নয়, চট্টগ্রাম সময় কাজ করছে প্রতিটা দিক নিয়ে। আমাদের ভবিষ্যৎ পথচলায় আপনাদের সাথী হিসেবে পেতে চাই।