বিএনপি কথায় নয় কাজে বিশ্বাসী: মোশাররফ

20

২০২১ সালে বছরব্যাপী ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা ও আড়ম্বরপূর্ণভাবে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন বিএনপির স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্য ও জাতীয় উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

তিনি বলেন, দেশের প্রকৃত মালিক জনগণকে সঙ্গে নিয়ে বিএনপি স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদ্দীপনার সঙ্গে উদযাপন করবে। বিএনপি কথায় নয় কাজে বিশ্বাসী। মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বিএনপি সাফল্যের বিস্তারিত পুস্তিকা আকারে প্রকাশের মাধ্যমে প্রকৃত চিত্র নতুন প্রজন্মের কাছে আরও স্পষ্ট ও সুনির্দিষ্টভাবে তুলে ধরার প্রয়াস গ্রহণ করবে।

রোববার (২২ নভেম্বর) গুলশানে দলের চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে বিএনপি গঠিত জাতীয় কমিটি আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, বিএনপি কেবল মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পক্ষের দলই নয়, রণাঙ্গনের সক্রিয় মুক্তিযোদ্ধাদেরও দল। স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের প্রতীক। বিএনপি গণতন্ত্র, জনকল্যাণমুখী রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা ও মানবিক মূল্যবোধের দল। তাই যথাযথ মর্যাদায় সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন অতীব তাৎপর্যপূর্ণ।

মোশাররফ বলেন, বিএনপি ২০২১ সালে বছরব্যাপী ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা ও আড়ম্বরপূর্ণভাবে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করবে এবং কর্মসূচিটিকে তৃণমূল পর্যায়ে ছড়িয়ে দেয়া হবে।

তিনি বলেন, এসব কর্মসূচি বাস্তবায়নে যেসব বিষয়ভিত্তিক উপকমিটি গঠন করা হবে তার অন্যতম হলো অর্থ, প্রচার, প্রকাশনা, ব্যবস্থাপনা, সাজসজ্জা, দফতর, সেমিনার-সিম্পোজিয়াম, সাংস্কৃতিক ও মিডিয়া উপকমিটি। এছাড়া বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন কর্মসূচি গ্রহণ করবে। বিশেষ করে মুক্তিযোদ্ধা দল ও মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্ম ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করবে।

মোশাররফ আরও বলেন, লক্ষ প্রাণের বিনিময়ে আমরা একটি স্বাধীন রাষ্ট্রের মালিক হয়েছি। হয়তো আমাদের প্রত্যাশা ও প্রাপ্তির মধ্যে বিরাট পার্থক্য বিদ্যমান। কিন্তু অপ্রাপ্তি যাই থাকুক, স্বাধীনতা আমাদের জীবনের সেরা অর্জন। এই প্রাাপ্তির সঙ্গে আর কোনো অগ্রগতি বা অন্যকিছুর তুলনা চলে না। তাই স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করতে হবে বিপুল উদ্দীপনা ও উৎসাহের সাথে।

তিনি বলেন, সরকার যদি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করে তবে আশা করব বাংলাদেশের যে রাজনৈতিক দল যেভাবে সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করতে চায় তা সরকার করতে দেবে।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব আব্দুস সালাম উপস্থিত ছিলেন।

চস/আজহার