‘সরকারের মন্ত্রীদের মস্তিষ্ক পরীক্ষা করা দরকার’

95

‘ডেঙ্গু নিয়ে স্ববিরোধী, বিপরীতধর্মী কথাবার্তা; রাতের কথার সঙ্গে সকালের কথার গরমিল, এ ধরনের কথা থেকে সিকি-আধুলি ও গোটা মন্ত্রী কেউই কম যাচ্ছেন না। রক্ত পরীক্ষার আগে সরকারের মন্ত্রীদের মস্তিষ্ক পরীক্ষা করা দরকার।’

আজ শুক্রবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রিজভী বলেন, ‘সারা দেশে হাসপাতালগুলোতে কোনো ঠাঁই নেই। ডেঙ্গু রোগীতে ছেয়ে গেছে সব হাসপাতাল। ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকেও রক্ত পরীক্ষা করতে পারছেন না রোগীরা। কেউ কেউ অনেক কষ্ট করে রক্ত পরীক্ষা করেও রিপোর্ট পেতে হয়রানির শিকার হচ্ছেন। যেদিন রিপোর্ট দেওয়ার কথা বলা হয়, সেদিন রোগীরা রিপোর্ট পান না। পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও রিপোর্ট নিয়ে প্রচণ্ড দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের পরিবারকে।’

রিজভী আরো বলেন, ‘ওবায়দুল কাদের সাহেব কদিন আগে বলেছেন যে সবাই ঈদে বাড়ি যাবেন, কোনো অসুবিধা নেই। গতকাল আবার বলেছেন, বাড়ি যাওয়ার আগে রক্ত পরীক্ষা করে যাবেন। আমি তো মনে করি, মানুষের রক্ত পরীক্ষার আগে সরকারের মন্ত্রীদের মস্তিষ্ক পরীক্ষা করা দরকার।’

খালেদা জিয়ার মুক্তি প্রসঙ্গে রিজভী বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে রোগে-শোকে, ব্যথা-বেদনায় জর্জরিত করে কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে। তাঁর জামিনে বাধা দেওয়া হচ্ছে। আদালতের কথাতেই মনে হচ্ছে যে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ ছাড়া কিছু হবে না।’ তিনি বলেন, ‘দেশবাসীর প্রত্যাশা ছিল, ঈদুল আজহার আগেই দেশনেত্রী কারামুক্ত হবেন। কিন্তু মানুষের সেই প্রত্যাশা পূরণ হয়নি।’

খালেদা জিয়া পরিবারের সদস্যদের মাধ্যমে দেশবাসীসহ বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের সব পর্যায়ের নেতাকর্মীদের পবিত্র ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বলেও জানান রিজভী।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

চস/আজহার