পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে মেলবোর্নেই হবে ‘বক্সিং ডে’ টেস্ট

করোনাভাইরাসের সেকেন্ড ওয়েভে পুনরায় লকডাউনে গেছে অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়া প্রদেশ। যার জেরে আগামীদিনে মেলবোর্নে অনুষ্ঠিত হতে চলা বিভিন্ন স্পোর্টিং ইভেন্ট ঘিরে তৈরি হয়েছে অনিশ্চয়তার বাতাবরণ। তালিকায় যেমন রয়েছে বছর শেষে ভারত-অস্ট্রেলিয়া বক্সিং ডে টেস্ট ম্যাচ, তেমনই রয়েছে আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেন।

ভিক্টোরিয়া প্রদেশের সাম্প্রতিক করোনা পরিস্থিতির জেরে বছর শেষে বক্সিং ডে টেস্ট ম্যাচ প্রথা ভেঙে মেলবোর্ন থেকে সরতে চলেছে অ্যাডিলেডে। কিছুদিন ধরে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার অন্দরমহলে বহুল চর্চিত বিষয় এটাই। তবে মেলবোর্ন যে কোনোভাবেই বক্সিং ডে টেস্ট ম্যাচ হাতছাড়া করতে চায় না, সেটা বুঝিয়ে দিলেন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার অন্তর্বর্তীকালীন চিফ এক্সিকিউটিভ নিক হকলে। দর্শক প্রবেশে অনুমতি পেলে বক্সিং ডে টেস্ট ম্যাচ মেলবোর্নেই অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ভিক্টোরিয়া প্রদেশে কঠোর নিষেধাজ্ঞা বলবৎ রয়েছে এই মুহূর্তে। খুব শীঘ্রই যার সুফল পাওয়া যাবে বলে আশা করা যায়। আবার পরিস্থিতি স্বাভাবিক ছন্দে ফিরবে। মানুষ বাইরে বের হবে। আর তাহলেই আমরা স্টেডিয়ামে দর্শকদের ফেরৎ পাব।

হকলে আরও জানিয়েছেন, বক্সিং ডে টেস্ট ম্যাচ অস্ট্রেলিয়ার স্পোর্টিং ক্যালেন্ডারে একটা আইকনিক ইভেন্ট। স্বাভাবিকভাবে আমরা সেটাকে যথাযথভাবে এবং সম্পূর্ণ পরিসরে আয়োজনের চেষ্টা করব। এই বিষয়ে আমাদের সঙ্গে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের ফলপ্রসূ আলোচনা চলছে এবং সরকার ভারতীয় দলের এদেশে পৌঁছনোর ব্যাপারে প্রয়োজনীয় সকল রকম অব্যাহতি দিতে তৈরি।

উল্লেখ্য, করোনার জেরে এই মুহূর্তে দ্বিতীয়বার লকডাউন চলছে ভিক্টোরিয়া প্রদেশে। সেখানে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮ হাজারের কাছাকাছি। স্বাভাবিকভাবেই প্রথা ভেঙে আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনও সরতে পারে মেলবোর্ন পার্ক থেকে।

অবস্থা বেগতিক দেখে ২০২১ অস্ট্রেলিয়ান ওপেন টুর্নামেন্ট আয়োজনে আসরে নেমেছে নিউ সাউথ ওয়েলস। নিউ সাউথ ওয়েলসের ডেপুটি প্রিমিয়র জন বারিলারো জানিয়েছেন, প্রতিবেশী ভিক্টোরিয়া প্রদেশ কোভিড-১৯ সংক্রমণের কারণে আয়োজন না করতে পারলে তাদের রাজ্য অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের মতো মেজর স্পোর্টস ইভেন্ট আয়োজনে প্রস্তুত।

চস/আজহার

শেয়ার করুন

The Post Viewed By: 52 People

Chattogram Somoy

চট্টগ্রাম থেকে পরিচালিত চট্টগ্রাম সময় একটি আধুনিক নিউজ পোর্টাল। ২৪ ঘন্টা খবরের সন্ধানে ছুটে চলা একদল সংবাদদাতা নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৯ এর জুলাইয়ে। কোনো একটা নির্দিষ্ট দিক নয়, চট্টগ্রাম সময় কাজ করছে প্রতিটা দিক নিয়ে। আমাদের ভবিষ্যৎ পথচলায় আপনাদের সাথী হিসেবে পেতে চাই।