ব্যাট করতে নেমে রেকর্ড করলেন বেলজিয়ামের ক্রিকেটার

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) এখন সব দেশকে দিয়েছে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টির মর্যাদা। যে কারণে প্রতিনিয়তই দেখা যাচ্ছে অদ্ভুত সব রেকর্ড।

বিশ্বের ক্রিকেটপ্রেমীদের চোখ যখন ইংল্যান্ড-পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি সিরিজ কিংবা ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে, তখন চেক রিপাবলিক ও বেলজিয়ামকে নিয়ে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের আয়োজন করেছে লুক্সেমবার্গ।

এ টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় দিনটি পুরোপুরি নিজের করে নিয়েছেন বেলজিয়াম অধিনায়ক শাহেরিয়ার বাট। বিশ্বের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ছয় নম্বরে নেমে হাঁকিয়েছেন সেঞ্চুরি। একইদিনে আগের ম্যাচে খেলেছেন ৮১* রানের ইনিংস। বলা বাহুল্য, দু’টিই বিশ্বরেকর্ড।

শনিবার দিনের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক লুক্সেমাবার্গের বিপক্ষে ৩৭ রানে জিতেছে বেলজিয়াম। আগে ব্যাট করে ১৬৫ রান করেছিল বেলজিয়াম। পাঁচ নম্বরে নেমে অধিনায়ক শাহেরিয়ারের ব্যাট থেকে আসে ৪৫ বলে ৮১ রানের অপরাজিত ইনিংস। পরে ১২৮ রানে থামে লুনক্সেমবার্গের ইনিংস। সহজ জয় পায় বেলজিয়াম।

মূল চমক দেখা গেছে দিনের পরের ম্যাচে। যেখানে টেবিল টপার বেলজিয়ামের মুখোমুখি হয় চেক রিপাবলিক। টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি বেলজিয়ামের। টি-টোয়েন্টি ম্যাচের ৮ ওভার শেষে তাদের সংগ্রহ ছিল ৪ উইকেটে ৪১ রান।

দিনের আগের ম্যাচে পাঁচ নম্বরে নামলেও, এ ম্যাচে ছয় নম্বরে নামেন অধিনায়ক শাহেরিয়ার। তখন বাকি ছিল মাত্র ৭২ বল, এর মধ্যে একাই ৫০টি মোকাবিলা করেছেন শাহেরিয়ার, রান করেছেন ১২৫। তার অপরাজিত এই ইনিংসে ছিল ১১টি চার ও ৯টি ছক্কার মার।

ইনিংসের ১৯তম ওভারে মাত্র ৪১ বলে সেঞ্চুরি পূরণ হয় শাহেরিয়ারের। যা কি না ছয় নম্বরে নেমে টি-টোয়েন্টিতে প্রথম সেঞ্চুরির রেকর্ড। গতবছর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ছয়ে নেমে ৪৭ বলে ৮৭ করেছিলেন ইংল্যান্ডের স্যাম বিলিংস। এতদিন এটিই ছিল রেকর্ড। এখন যা শাহেরিয়ারের দখলে। এছাড়া একইদিনে টি-টোয়েন্টিতে ফিফটি ও সেঞ্চুরি করা একমাত্র ব্যাটসম্যানও এখন শাহেরিয়ার।

তার ঝড়ো সেঞ্চুরির সুবাদে ৮ ওভারে ৪১ থেকে ২০ ওভার শেষে ১৯৭ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় বেলজিয়াম। যা তাড়া করতে নেমে চেক রিপাবলিকের ইনিংস থামে ১৫১ রানে। বেলজিয়াম পায় ৪৫ রানের জয়।

চস/আজহার

শেয়ার করুন

The Post Viewed By: 44 People

Chattogram Somoy

চট্টগ্রাম থেকে পরিচালিত চট্টগ্রাম সময় একটি আধুনিক নিউজ পোর্টাল। ২৪ ঘন্টা খবরের সন্ধানে ছুটে চলা একদল সংবাদদাতা নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৯ এর জুলাইয়ে। কোনো একটা নির্দিষ্ট দিক নয়, চট্টগ্রাম সময় কাজ করছে প্রতিটা দিক নিয়ে। আমাদের ভবিষ্যৎ পথচলায় আপনাদের সাথী হিসেবে পেতে চাই।