এবার মিসবাহর উপর বিরক্ত ইনজামাম

মিসবাহ’র আচরণটা একেবারেই ভালো লাগেনি ইনজামাম-উল-হকের। পাকিস্তান-ইংল্যান্ড দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচের সময় ড্রেসিংরুমে বসে মাথায় হাত দিয়ে পাকিস্তানের কোচ ও প্রধান নির্বাচকের যে অভিব্যক্তি, সেটিকে দলের জন্য ক্ষতিকরই মনে করেন সাবেক এ অধিনায়ক।

ওল্ড ট্রাফোর্ড ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে পাত্তাই পায়নি পাকিস্তান। যদিও প্রথমে ব্যাটিং করে স্কোরবোর্ডে ১৯৫ রান তোলার পর হারটা যে এত সহজে হবে, সেটা হয়তো বুঝতে পারেনি পাকিস্তান দল।

দুই ইংলিশ ওপেনার জনি বেয়ারস্টো, টম ব্যান্টনের দুর্ধর্ষ শুরুর ওপর দাঁড়িয়ে ডেভিড মালান আর অধিনায়ক এউইন মরগান ইংল্যান্ডের জয়টাকে ত্বরান্বিত করেছেন। বোলারদের অসহায় হাল দেখে বোধ হয় মিসবাহ প্রায় নিজের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছেন। টেলিভিশন ক্যামেরা যতবার পাকিস্তানের ড্রেসিং রুম দেখিয়েছে ততবারই মিসবাহকে বিভিন্ন হতাশ অভিব্যক্তিতে দেখা গেছে। একবার তো ড্রেসিং রুম থেকে ছুটে বেরিয়ে ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে দলের খেলোয়াড়দের বিভিন্ন নির্দেশনাও দিলেন। স্কাই স্পোর্টসের ধারাভাষ্যকাররাও ব্যাপারটি খুব ইতিবাচকভাবে নেননি।

ইনজামাম মনে করেন কোচের এমন অভিব্যক্তি দলের ওপর চাপ তৈরি করে। খেলোয়াড়েরা ম্যাচ চলার সময়ই এসব দেখে প্রেরণা হারিয়ে ফেলেন। তাঁদের আত্মবিশ্বাসে ঘাটতি দেখা দেয়, ‘ইংল্যান্ডের ইনিংসের পঞ্চম ওভারে টেলিভিশন ক্যামেরা দেখাল মিসবাহ মাথায় হাত দিয়ে বসে আছে। সে হতাশ। ব্যাপারটা এমন যে খুব বাজে কিছু ঘটে গেছে। এসব অভিব্যক্তি কিন্তু খেলোয়াড়দের ভুল বার্তা দেয়। ম্যাচের মধ্যে যদি কোচ এমন অঙ্গভঙ্গি করতে থাকে, তাহলে খেলোয়াড়েরা আত্মবিশ্বাস হারিয়ে ফেলে।’

চস/আজহার

শেয়ার করুন

The Post Viewed By: 37 People

Chattogram Somoy

চট্টগ্রাম থেকে পরিচালিত চট্টগ্রাম সময় একটি আধুনিক নিউজ পোর্টাল। ২৪ ঘন্টা খবরের সন্ধানে ছুটে চলা একদল সংবাদদাতা নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৯ এর জুলাইয়ে। কোনো একটা নির্দিষ্ট দিক নয়, চট্টগ্রাম সময় কাজ করছে প্রতিটা দিক নিয়ে। আমাদের ভবিষ্যৎ পথচলায় আপনাদের সাথী হিসেবে পেতে চাই।