সুয়ারেজের বিদায়ে মেসির আবেগঘন পোস্ট ইনস্টাগ্রামে

জাভি, ইনিয়েস্তা ও নেইমারের বিদায়ের পর বার্সেলোনায় মেসির সবচেয়ে কাছের বন্ধু ছিলেন উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজ। মেসিকে আরও নিঃসঙ্গ করে শেষ পর্যন্ত সুয়ারেজও চলে গেলেন আথলেটিকো মাদ্রিদে। তবে সুয়ারেজের বিদায় একটু বেশি বেদনাদায়ক হতে পারে মেসির জন্য।

কারণ বার্সেলোনায় দীর্ঘ ছয় বছরে পরিবারের মতোই হয়ে গিয়েছিলেন মেসি ও সুয়ারেজ। মাঠের বন্ধুত্ব ছাপিয়ে দুই পরিবারের মধ্যকার বন্ধন আরও বেশি দৃঢ়। সে কারণে প্রিয় বন্ধুর বিদায়ে কষ্ট আর ধরে রাখতে পারেননি লিওনেল মেসি। শুক্রবার ইনস্টাগ্রাম পোস্টে নিজের আবেগ প্রকাশই করে দিলেন তিনি।

বিশদ বার্তা দিয়ে মেসি লিখেছেন, ‘আমি এরই মধ্যে কল্পনা করতে শুরু করে দিয়েছিলাম সুয়ারেজকে ছাড়া কীভাবে সময় কাটবে। আজ আমি যখন ড্রেসিংরুমে গেলাম, এটা সত্যিই আমার কাছে অবিশ্বাস্য লেগেছে। মাঠ ও মাঠের বাইরে তোমার (সুয়ারেজ) সঙ্গে সময় না কাটিয়ে থাকা আমার জন্য অনেক বেশি কঠিন হতে চলেছে। আমরা সবাই তোমাকে অনেক বেশি মিস করব। আমরা একসঙ্গে অনেক বছর খেলেছি, একসঙ্গে অনেক লাঞ্চ ও ডিনার উপভোগ করেছি। এমন অনেক মুহূর্ত রয়েছে যা আমরা কোনোদিনও ভুলব না। একসঙ্গে কাটানো ওই সব সুখস্মৃতি কখনোই ভুলে থাকা সম্ভব নয়।’

এথলেটিকো মাদ্রিদে সুয়ারেজের খেলাকে যেন মেনে নিতে পারছেন না মেসি। তিনি সুয়ারেজের উদ্দেশে লিখেছেন, ‘তোমাকে অন্য কোনো জার্সিতে দেখা বেশ অদ্ভুতই হবে। এর চেয়েও কঠিন হবে মাঠে তোমার বিপক্ষে খেলা। তুমি একটা বিদায়ী সংবর্ধনা ডিজার্ভ করো, যা তোমার অর্জন ছিল। তুমি ক্লাবের ইতিহাসের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। বার্সেলোনার দল ও তোমার ব্যক্তিগত ক্যারিয়ারে অনেক কিছু জিতেছ তুমি।’

এরপরই ক্লাব বার্সেলোনার ওপর চড়াও হন মেসি। ক্লাবের প্রতি চাপা ক্ষোভ প্রকাশ করেন মেসি, ‘এভাবে ছুড়ে ফেলে দেয়া তোমার প্রাপ্য ছিল না, যেমনটা তারা তোমার সঙ্গে করল। তবে সত্যি কথা বলতে, বর্তমান পরিস্থিতিতেই ক্লাবের কোনোকিছুতেই আমি আর অবাক হই না।’

চস/আজহার

শেয়ার করুন

The Post Viewed By: 57 People

Chattogram Somoy

চট্টগ্রাম থেকে পরিচালিত চট্টগ্রাম সময় একটি আধুনিক নিউজ পোর্টাল। ২৪ ঘন্টা খবরের সন্ধানে ছুটে চলা একদল সংবাদদাতা নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয়েছে ২০১৯ এর জুলাইয়ে। কোনো একটা নির্দিষ্ট দিক নয়, চট্টগ্রাম সময় কাজ করছে প্রতিটা দিক নিয়ে। আমাদের ভবিষ্যৎ পথচলায় আপনাদের সাথী হিসেবে পেতে চাই।

One thought on “সুয়ারেজের বিদায়ে মেসির আবেগঘন পোস্ট ইনস্টাগ্রামে

Comments are closed.