নোয়াখালীতে হত্যার ভয় দেখিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ করেন যুবলীগ নেতা

67
ads here

চাটখিল উপজেলার নোয়াখলা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে হত্যার ভয় দেখিয়ে অস্ত্রের মুখে প্রবাসীর স্ত্রীকে (২৯) ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা শরীফ বাহিনীর প্রধান মজিবুর রহমান শরীফকে (৩২) দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এদিকে তার দেওয়ার তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে পিস্তল, গুলি, মোবাইল, বিয়ারের ক্যান, ল্যাপটপ ও কনডম উদ্ধার করে।

ads here

বুধবার রাতে নোয়াখলা ইউনিয়নের পৃথকস্থানে এ অভিযান পরিচালনা করেন। এদিকে রাতে চাটখিল উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর উল্যাহ পাটোয়ারী ও যুগ্ম আহ্বায়ক সাজ্জাদ হোসেন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে মজিবুর রহমান শরীফকে নোয়াখলা ইউনিয়ন (পশ্চিম) যুবলীগের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়।

চাটখিল থানার ওসি মো আনোয়ারুল ইসলাম জানান, ওই গৃহবধূর দায়ের করা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ও পর্ণোগ্রাফি মামলায় গ্রেপ্তারকৃত শরীফকে থানায় ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে সে তার কাছে অস্ত্র আছে বলে স্বীকার করলে রাতে তাকে নিয়ে তার বাড়ী, বাসা ও অফিস’সহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হয়। অভিযানকালে শরীফের বসতঘর থেকে একটি ইতালিয়ান পিস্তল, দুই রাউন্ড গুলি, দু’টি মোবাইল, অফিস থেকে একটি বিয়ারের খালি ক্যান, এক বক্স কনডম, তিনটি মোবাইল ও গ্রীল ওয়ার্কসপ থেকে একটি ল্যাপটপ উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত মোবাইলগুলো ও ল্যাপটপ চেক করা হচ্ছে। ঘটনায় তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বুধবার ভোরে কৌশলে প্রবাসীর স্ত্রীর ঘরে ডুকে তার দুই সন্তানকে অন্য কক্ষে আটকে রেখে ছোরা দিয়ে হত্যার ভয় দেখিয়ে অস্ত্রের মুখে তাকে ধর্ষণ করে শরীফ। ধর্ষণ শেষে ওই গৃহবধূর বিবস্ত্র ছবি, ভিডিও ধারণ ও মোবাইল নাম্বার নিয়ে বিষয়টি কাউকে জানালে বংশের সবাইকে হত্যার হুমকি দিয়ে যায় শরীফ। দুপুরের দিকে এ ঘটনায় গৃহবধূ চাটখিল থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ তাৎক্ষনাৎ অভিযান চালিয়ে শরীফকে গ্রেপ্তার করে।

চস/আজহার

ads here