স্বামীর পরকীয়া প্রেমে বাধা দেওয়ায় অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে হত্যা

75
ads here

স্বামীর পরকীয়া প্রেমে বাধা দেওয়ায় প্রান দিতে হলো সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ পারভীন আক্তারকে। শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করছে স্থানীয়রা। হত্যা করার পর স্ত্রীকে কাঁথা দিয়ে ঢেকে বুধবার (২৫ নভেম্বর) সকালে ইটভাটায় কাজে চলে যান স্বামী আব্দুল খালেক। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ গ্রামবাসী নিহতের স্বামীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

ads here

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার লাবসা ইউনিয়নের রাজনগর গ্রামে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। গৃহবধূ পারভীন আক্তার (২৫) একই উপজেলার রাজনগর গ্রামের আব্দুর রহিমের মেয়ে। স্বামী আব্দুল খালেক পার্শ্ববর্তী হাজিপুর গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে। বেলা ১২টার দিকে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আসাদুজ্জামান জানান, সম্প্রতি ইটভাটা শ্রমিক খালেক বাড়ির পাশ্ববর্তী এক নারীর সঙ্গে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়েন। এননিয়ে গত এক সপ্তাহ ধরে স্ত্রী পারভিনের সাথে তার বিরোধ চলছিল। মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) রাত ৯টার দিকে খালেক তার স্ত্রী পারভিনকে মারধর করে। ভোরে ঘরের বাইরে থেকে তালা দিয়ে ইটভাটায় কাজে যায় আব্দুল খালেক। বুধবার সকালে তাদের মেয়ে ফারজানার কান্না শুনে ঘরের তালা ভেঙে পারভীনকে কাঁথা মোড়ানো অবস্থায় দেখতে পায় প্রতিবেশীরা। ধারণা করা হচ্ছে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

চস/আজহার

ads here