‘পকেট এসি’ আনছে সনি

170
  |  শনিবার, আগস্ট ৩, ২০১৯ |  ১:৩৭ অপরাহ্ণ
ads here

জামার ভিতর এই এসি লাগিয়ে বের হলেই ঠান্ডা থাকবে শরীর। প্রচন্ড গরমেও শরীর থাকবে তরতাজা!

প্রচন্ড গরমে ঘেমে-নেয়ে অফিস যাওয়ার কষ্ট একজন নিত্যযাত্রীই বোঝেন। যতক্ষণে অফিস পৌঁছবেন, আপনার সাধের ফর্মাল শার্ট ঘামে ভিজে একাকার। শুধু যে দেখতেই খারাপ লাগে তাই নয়, অতিরিক্ত গরমে হতে পারে ডিহাইড্রেশন বা হিট স্ট্রোকও। সেই দিকে নজর রেখেই এবার পকেট এসি আনতে চলেছে সোনি। জামার ভিতর এই এসি লাগিয়ে বের হলেই ঠান্ডা থাকবে শরীর। প্রচন্ড গরমেও শরীর থাকবে তরতাজা।
গত শনিবার সোনি এই পকেট এসির টিজার ভিডিয়ো লঞ্চ করে। ইউটিউবে প্রায় তিন লাখ ভিউ পেয়েছে সেই ভিডিয়ো। সোনির এই এসির নাম ‘রিওন পকেট’। এসিটি আকারে একটি স্মার্টফোনের থেকেও ছোট। বেশ পাতলাও। পকেটে থাকলেও চট করে বোঝার উপায় নেই। ভিডিয়োয় দেখানো ব্যবহারবিধি অনুযায়ী এসি ব্যবহারের জন্য দুটি জামা পরতে হবে। শার্টের ভিতরে যে গেঞ্জি পরা হয়, সেই গেঞ্জিতে ঘাড়ের কাছে একটি ছোট্ট পকেট থাকতে হবে। গেঞ্জিটি পরে তার পকেটে রাখতে হবে এসি। তার উপরে শার্ট পরতে হবে।
ভাবছেন এ ভাবে এসি চালু করবেন কী করে? চিন্তা নেই, আপনার স্মার্টফোনের সাহায্যেই চালু করা যাবে এসি। এসির ঠান্ডা নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন ফোন থেকেই। আপনার ফোনের ব্লু-টুথের সাহায্যে যুক্ত থাকবে পকেট এসি।
যে ভাবে কাজ করে এই এসি? সাধারণ এসির মতোই কাজ করে রিওন পকেট এসি। আপনার গেঞ্জির মধ্যে থেকে গরম হাওয়া টেনে বার করে দেয় এই এসি। পাশাপাশি ঢুকতে থাকে ঠান্ডা হাওয়া। এর ফলে শরীর ও গেঞ্জির মাঝে ঠান্ডা হাওয়ার স্তর তৈরী হয়। ঠান্ডা থাকে শরীর। সংস্থার দাবি, দেখতে ছোট হলেও কাজের দিক থেকে মোটেও কমজোরি নয় এই পকেট এসি। সাধারণের থেকে প্রায় ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত তাপমাত্রা কমাতে সক্ষম রিওন পকেট এসি। শুধু ঠান্ডাই নয়। শীতকালে তাপমাত্রা বাড়াতেও পারবেন এই এসি ব্যবহার করে। প্রায় ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত বাড়ানো যাবে শার্টের ভিতরের তাপমাত্রা। চার্জ দিতেও নেই সমস্যা। আপনার ফোনের চার্জার দিয়েও চার্জ দেওয়া যাবে এই এসি। এক বার ফুল চার্জে প্রায় ২৪ ঘণ্টা অর্থাৎ একদিন থাকবে চার্জ।
গত বছর এম্বার ওয়েভ নামের এক সংস্থা প্রথম পকেট এসি বানায়। তবে, প্রচারের অভাবে সেভাবে জনপ্রিয়তা পায়নি সেই এসি। সোনির এই এসি-র দাম ১২,৭৬০ ইয়েন। অর্থাৎ, ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৮,০৮৫ টাকা। তবে, পকেট এসির হাওয়া খেতে অপেক্ষা করতে হবে আরও কয়েক মাস। ২০২০ সালের মার্চে বাজারে আসবে রিওন পকেট এসি। [তথ্যসূত্র : মিরর]

ads here

চস/সোহাগ

ads here