যুক্তরাষ্ট্রে শপিং মলে গুলিবর্ষণে নিহত ২০

123
ads here

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে একটি বিপণিবিতানে এক বন্দুকধারীর এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণে ২০ জন নিহত হয়েছেন।

ads here

যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তের অল্প কয়েক মাইল দূরের এল পাসোর সিয়েলো ভিস্তা শপিং মলে ওয়াল মার্টের দোকানে শনিবার বেলা ১১টার দিকে এই ঘটনা ঘটে বলে রয়টার্স জানিয়েছে।

হামলাকারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রয়টার্স জানিয়েছে, ২১ বছর বয়সী শ্বেতাঙ্গ ওই যুবক এল পাসোর ৬৫০ মাইল পূর্বের শহর টেক্সাসের অ্যালেনের বাসিন্দা।

উত্তর ক্যালিফোর্নিয়ায় একটি খাদ্যোৎসবে হামলার ছয় দিনের মধ্যে এল পাসোর ঘটনাটি ঘটল।

ব্যস্ত সময়ে ওয়াল মার্টের ওই বিপণিবিতানে এই হামলায় আহত হয়েছেন দুই ডজনের বেশি মানুষ।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম এল পাসো টাইমস বলছে, গুলিবিদ্ধ অন্তত ১১ জনকে চিকিৎসার জন্য শহরের ইউনিভার্সিটি মেডিকেল সেন্টারে আনা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এক টুইটে বলেছেন, টেক্সাসের এই ঘটনা অত্যন্ত বেদনাদায়ক।

টেক্সাসের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবোট এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, “ছুটির এই দিনে একটি স্বাভাবিক দিনের মতো হতে পারত, যেখানে মানুষ ছুটির আমেজে কেনাকাটা করত। কিন্তু দিনটি টেক্সাসের ইতিহাসে একটি ভয়াবহ দিনে পরিণত হল।”

নিহতের সংখ্যা ২০ জন বলে নিশ্চিত করেন গভর্নর।

মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রে ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাদর জানিয়েছেন, নিহতের মধ্যে তিনজন মেক্সিকান রয়েছে, আহতের মধ্যে রয়েছেন ছয়জন।

এল পাসোর মেয়র ডি মারগো সিএনএনকে বলেন, “এটা একটা ভয়ানক ঘটনা, যা এল পাসোয় ঘটবে বলে আমরা কখনো ভাবিনি। আমার কান্না পাচ্ছে।”

ওই যুবক কেন এই হামলা চালিয়েছে, তা তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন টেক্সাসের অ্যাটর্নি জেনারেল কেন প্যাক্সটন।

তদন্ত চলার কথা জানালেও এল পাসোর পুলিশ প্রধান গ্রেগ অ্যালেন ইঙ্গিত করেছেন, বর্ণ কিংবা জাতিগত বিদ্বেষ থেকে এই হামলার ঘটনা ঘটতে পারে।

হামলাকারীকে যুবককে পুলিশ তাদের হেফাজতে নিয়েছে। সোশাল মিডিয়ায় আসা ভিডিওতে দেখা যায়, পুলিশ তাকে হাতকড়া পরিয়ে একটি গাড়িতে তুলছে।

হামলার আগের একটি ভিডিওতে ওই যুবককে একটি অ্যাসল্ট রাইফেল হাতে ওয়ালমার্টের ওই শপিং মলে ঢুকতে দেখা গেছে বলে জানিয়েছে এল পাসোর টেলিভিশন কেটিএসএম।

ঢোকার সময় ওই যুবকের চোখে ছিল চশমা, কানে হেডফোন, তার পরনে ছিল খাকি রঙের প্যান্ট, গায়ে ছিল গাঢ় রঙের টি শার্ট।

চস/আজহার

ads here