নিউইয়র্কের বার্ড কলেজকে ৪২ কোটি টাকা উপহার দিলেন এক বাংলাদেশি

54
ads here

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মার্কিন ব্যবসায়ী মোস্তাফিজ শাহমোহামেদ যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরের ৯০ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী বার্ড কলেজকে ৪২ কোটি ৩৮ লাখ টাকা ‘উপহার’ দিয়েছেন।

ads here

১৭ বছর বয়সে বাংলাদেশ থেকে বৃত্তি নিয়ে মার্কিন মুলুকে পাড়ি দেন মোস্তাফিজ। এই কলেজে ভর্তি হওয়ার পর খুঁজে পান নতুন জীবনের দিশা।

মোস্তাফিজের ৯৭’ ব্যাচের সহপাঠী অর্চনা শ্রীধর গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, কলেজ কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যে উপহারের অর্থ গ্রহণ করেছে।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত অর্চনা বলেন, ‘আমাদের মাতৃস্থানীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দক্ষিণ এশিয়ার কোনো সহপাঠী এমন উপহার দিয়েছে, এটি ভাবতেই ভালো লাগছে।’

কলেজ কর্তৃপক্ষ বলছে, এই অর্থ দিয়ে তারা নতুন শিক্ষার্থীদের বৃত্তির ব্যবস্থা করবেন।

বার্ড কলেজের প্রেসিডেন্ট লিওন বটস্টেইন কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, ‘মোস্তাফিজের উপহার স্মরণীয় হয়ে থাকবে। আমাদের জন্য এটি অনুপ্রেরণার। আশা করছি তার এই উপহার অন্য সাবেক শিক্ষার্থীদের এগিয়ে আসতে উৎসাহিত করবে।’

‘আমার ওপর বার্ডের গভীর প্রভাব আছে। আমি এই কলেজেরই প্রোডাক্ট,’ এভাবে নিজের শিক্ষাঙ্গনকে সম্মান জানিয়ে কলেজের বিবৃতিতে মোস্তাফিজ বলেছেন, ‘বার্ড শুধুমাত্র আমার ব্যক্তিগত এবং বৃদ্ধিবৃত্তিক উন্নতিতে সহায়তা করেনি, আমাদের সভ্যতার সর্বোত্তম মূল্যবোধগুলোরও প্রতিরূপ দিয়েছে।’

বার্ডকে ‘সুপ্ত রত্ন’ আখ্যা দিয়ে মোস্তাফিজ বলেন, ‘এই প্রতিষ্ঠান সব সময় সময়ের চেয়ে এগিয়ে থাকে। প্রতিষ্ঠানটির বৃত্তির কারণেই আমি কিশোর বয়সে বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রে আসতে সক্ষম হই।’

‘আমি বার্ডকে অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী দেখতে চাই। নতুন অধ্যায়ের সঙ্গী হতে চাই।’

মোস্তাফিজ বাংলাদেশিদের কাছে অপরিচিত নাম হলেও যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক খাতের স্বনামধন্য এক মুখ। আমুর ইকুইপমেন্ট ফাইন্যান্সের চেয়ারম্যান এবং সিইও। ব্যবসায়িক অর্থনৈতিক খাতে বিনিয়োগের লক্ষ্যে ২০০৮ সালে তিনি আমুর ক্যাপিটাল গ্রুপ নামের প্রাইভেট ইনভেস্টমেন্ট ফার্ম প্রতিষ্ঠা করেন। এখান থেকে ২০১০ সালে আমুর ইকুইপমেন্ট ফাইন্যান্সে বিনিয়োগ করেন। ২০১৩ সালে বিনিয়োগের পরিধি বাড়ান।

চস/আ

ads here