৪৬ বছর পর লজ্জার রেকর্ড ভারতের!

হ্যাজেলউড-কামিন্সের তোপে লণ্ডভণ্ড ভারত

43
ads here

৪৬ বছরের পুরনো লজ্জার রেকর্ডের খাতা খুললো ভারত। ১৯৭৪ সালে লর্ডসে সবচেয়ে কম রানে ইনিংস শেষ করার লজ্জায় ডুবেছিল তারা। সেবার অলআউট হয়েছিল ৪২ রান। টেস্ট ইতিহাসে সর্বনিম্ন ইনিংসের রেকর্ডটা আজ (শনিবার) নতুন করে লিখলো বিরাট কোহলিরা। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অ্যডিলেড টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ৩৬ রানে শেষ ভারত!

ads here

মোহাম্মদ সামির ডান হাতে প্যাট কামিন্সের বল আঘাত করার পর বেশ খানিক সময় মাঠেই চিকিৎসা চললো। আঘাত যে খুব জোরেই লেগেছে, সেটি বুঝতে সময় লাগলো না। মাঠ ছেড়ে উঠে গেছেন এই পেসার। এরই সঙ্গে লজ্জার সাগরে ডুবে গেল কোহলি অ্যান্ড কোং। সামি শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে রিটার্ড হার্ট হয়ে যখন মাঠ ছাড়লেন, ভারতের স্কোর তখন ৩৬। এতেই হলে গেল সবচেয়ে কম রানে ইনিংস শেষ হওয়ার লজ্জার রেকর্ড।

অথচ ৬২ রানের লিড ও ৯ উইকেট হাতে নিয়ে অ্যাডিলেডের দিবারাত্রির টেস্টের তৃতীয় দিন শুরু করেছিল ভারত। কিন্তু দিনের শুরু থেকেই ভয়ঙ্কর ছিলেন অস্ট্রেলিয়ান দুই পেসার জস হ্যাজেলউড ও কামিন্স। এই দুই পেসারের তোপেই লণ্ডভণ্ড ভারত। হ্যাজেলউড ৫ ওভারে ৮ রান দিয়ে নিয়েছেন ৫ উইকেট। আর কামিন্স ২১ রান খরচায় পেয়েছেন ৪ উইকেট।

এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে, বিশেষ করে ৬২ রানের লিড নিয়ে তৃতীয় দিন শুরু করে ভারত লক্ষ্য দিতে পেরেছে মাত্র ৯০ রানের। ডিনার বিরতিতে যাওয়ার আগে সেই লক্ষ্যে কোনও উইকেট না হারিয়ে অস্ট্রেলিয়া তুলে ফেলে ১৫ রান।

ভারতকে গুঁড়িয়ে দিতে বল হাতে তাণ্ডব চালানো হ্যাজেলউড ফক্স ক্রিকেটকে বলেছেন, ‘সবকিছু পরিকল্পনা অনুযায়ী এগিয়েছে। যেভাবে প্যাটি (কামিন্স) শুরু করেছিল, সত্যিই দুর্দান্ত, দুটো বড় উইকেট নিয়েছিল। আমি শুধু ওকে অনুসরণ করেছি।’

ভারতের সবচেয়ে কম রানে ইনিংস শেষ হয়ে যাওয়াটা আবার টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসের সপ্তম সর্বনিম্ন ইনিংসের রেকর্ড। এর আগে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তাদের সর্বনিম্ন স্কোরের রেকর্ডটা ছিল ৫৮ রানের। ব্রিসবেনের ওই টেস্টটি ছিল ভারতের স্বাধীনতা পাওয়ার পরপরই, ১৯৪৭ সালের নভেম্বরে।

 

 

চস/এএম

ads here