আল্লামা শফী হত্যার অভিযোগ: হাটহাজারী মাদ্রাসায় পিবিআইয়ের তদন্ত

36
ads here

হেফাজতে ইসলামের সাবেক আমির ও হাটহাজারী মাদ্রাসার সাবেক পরিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফীকে হত্যার অভিযোগে আদালতে দায়ের করা মামলার তদন্তকাজ শুরু করেছে পিবিআই।

ads here

মামলার অভিযোগ তদন্ত করতে মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) বেলা ১১টায় হাটহাজারী মাদ্রাসায় পরিদর্শনে যান পিবিআইয়ের একটি দল। তারা তিনঘণ্টা ধরে হাটহাজারী মাদ্রাসায় অবস্থান করেন।

উল্লেখ্য, গত ১৭ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শিবলু কুমার দে’র আদালতে মামলাটি দায়ের করেন আল্লামা শফীর শ্যালক মোহাম্মদ মাঈনুদ্দিন। আদালত মামলাটি পিবিআইকে তদন্তের দায়িত্ব দেন। আদালতে এক মাসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়। এছাড়া মামলায় মাওলানা মামুনুল হক, নাছির উদ্দিন মুনির, আজিজুল হক ইসলামাবাদী, মীর ইদ্রিস, হাবিব উল্লাহ, আহসান উল্লাহ, জাকারিয়া নোমান ফয়েজী, নুরুজ্জামান নোমানী, আব্দুল মতিন, মো. শহীদুল্লাহ, মো. রিজওয়ান আরমান, মো. নজরুল ইসলাম, হাসানুজ্জামান, এনামুল হাসান ফারুকী, মীর সাজেদ, জাফর আহমদ, মীর জিয়াউদ্দিন, আহমদ, মাহমুদ, আসাদউল্লাহ, জোবায়ের মাহমুদ, এইচএম জুনায়েদ, আনোয়ার শাহ, আহমদ কামাল, নাছির উদ্দিন, কামরুল ইসলাম কাসেমী, মোহাম্মদ হাসান, ওবায়দুল্লাহ ওবাইদ, জুবায়ের, মোহাম্মদ, আমিনুল হক, রফিক সোহেল, মোবিনুল হক, নাঈম, হাফেজ সায়েম উল্লাহ, হাসান জামিলসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৮০-৯০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার মো. ইকবাল সাংবাদিকদের বলেন, ‘এজহারে যা উল্লেখ করা হয়েছে সব কিছুই তদন্ত করা হবে। লাশ উত্তোলনের প্রশ্নে তিনি বলেন এখনও এ রকম কোনো সিন্ধান্ত হয়নি। পিবিআই টিম ফটিকছড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছে।’

 

চস/আজহার

ads here