বিজেপি-তৃণমূলের সংঘর্ষ, ৪ জনের মৃত্যু

39
  |  শনিবার, এপ্রিল ১০, ২০২১ |  ২:১১ অপরাহ্ণ
ads here

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পাঁচ জেলার ৪৪টি কেন্দ্রে শনিবার বিধানসভা নির্বাচনের চতুর্থ দফার ভোট শুরু হয়েছে। ভোট গ্রহণকে কেন্দ্র করে রাজ্যের কুচ বিহার জেলায় বিজেপি এবং তৃণমূল কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় গোলাগুলির ঘটনায় চারজনের মৃত্যু হয়েছে। খবর এনডিটিভির।

ads here

জি নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কেন্দ্রীয় বাহিনী গুলি চালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এতে চার যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তৃণমূলের দাবি ওই চারজনই তাদের সমর্থক। অন্যদিকে কেন্দ্রীয় বাহিনী বলছে, হঠাৎ ৩শ থেকে ৪শ জনের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। সে সময় দু’পক্ষের মধ্যে ঝামেলা থামাতে এবং নিজেদের আত্মরক্ষার্থেই গুলি চালাতে বাধ্য হয় কেন্দ্রীয় বাহিনী।

এক প্রতিবেদনে জানা গেছে, ঘটনাস্থলেই একজনের মৃত্যু হয়েছে। বাকি তিনজনকে নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই তাদের মৃত্যু হয়।

নিহত ওই চারজনের নাম হামিদুল হক, হামিনুল হক, মনিরুল হক এবং নূর আলম। এই ঘটনার পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট তলব করেছে নির্বাচন কমিশন। পাশাপাশি মুখ্য নির্বাচনী কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। কোন পরিস্থিতিতে পুলিশকে গুলি চালাতে হয়েছে তা জানতে চাওয়া হয়েছে।

উত্তরবঙ্গের কোচবিহার জেলার নয়টি এবং আলিপুরদুয়ারের পাঁচটি বিধানসভা আসনের সবগুলোতেই ভোটগ্রহণ চলছে। এছাড়া দক্ষিণ ২৪ পরগনার ৩১টি কেন্দ্রের মধ্যে ১১টি, হাওড়া জেলার ১৬টির মধ্যে নয়টি এবং হুগলির ১৮টির মধ্যে ১০টি আসনেও ভোট হচ্ছে।

২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে এই ৪৪টি আসনের মধ্যে তৃণমূলের দখলে ছিল ৩৯টি। বিজেপির হাতে মাত্র ১টি এবং বামদের দখলে ৩টি আসন। আর তাদের জোট শরিক কংগ্রেসের ঝুলিতে ১টি আসন ছিল। অবশ্য ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের বিধানসভা ভিত্তিক ফলের হিসাব অনেক বদলে গেছে। এই ৪৪টি আসনের মধ্যে তৃণমূল ২৫টি এবং বিজেপি ১৯টি কেন্দ্রে এগিয়ে। তবে সেসময় পৃথকভাবে লড়াই করা বাম-কংগ্রেসের হাতে কোনো আসনই নেই।

চস/আজহার

ads here