গার্দিওলার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতা হচ্ছে না যে অভিশাপে

40
  |  রবিবার, মে ৩০, ২০২১ |  ১:০৬ অপরাহ্ণ
পেপ গার্দিওলা/ফাইল ছবি
ads here

লিগে দারুণ সফল পেপ গার্দিওলা, তবে বার্সেলোনা ছাড়ার পর থেকেই যেন চ্যাম্পিয়ন্স লিগ যেন থেকে যাচ্ছে অধরা। কেন? এ প্রশ্নের জবাবে কেউ বলবেন তার বেশি ভাবার প্রবণতাকে, কেউ দায় দেখবেন দুর্ভাগ্যেরও। কিন্তু অভিশাপও কি আছে এর পেছনে? এমন কিছুর ইঙ্গিত আরও আগেই দিয়েছেন গার্দিওলার সাবেক শিষ্য ইয়ায়া তোরের এজেন্ট দিমিত্রি সেলুক।

ads here

গার্দিওলা যখন ম্যানচেস্টার সিটিতে পা রাখছেন, ইয়ায়া তোরে তখন রীতিমতো সিটির কিংবদন্তি। এর আগে বার্সেলোনাতেও কোচিং করিয়েছিলেন তার। তবু দলের দায়িত্ব পেয়েই যেন আইভরি কোস্ট মিডফিল্ডার থেকে মুখ ফিরিয়ে নেন সিটি কোচ। এর কিছু পরে দলও ছাড়েন তিনি।

সিটিতে তার এভাবে ব্রাত্য হয়ে যাওয়াটাকে এজেন্ট সেলুক অন্যায্য হিসেবেই দেখেন। তিনি বলেছিলেন, ‘ঈশ্বর সব দেখেন। তিনি যেভাবে ক্লাব কিংবদন্তি ইয়ায়ার সঙ্গে আচরণ করেছেন, তাতে তিনি গোটা আফ্রিকার বিরুদ্ধেই চলে গেছেন। অনেক আফ্রিকান ভক্ত এখন সিটি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে।’

আফ্রিকান শামানদের তুকতাক সম্পর্কে কে না জানে। ইয়ায়াকে ব্রাত্য করে দিয়ে আফ্রিকাকে ক্ষেপিয়ে তোলার ফল হিসেবে সেই তুকতাকের মুখোমুখিই হবেন গার্দিওলা, জানান সেলুক। বলেন, ‘আমি নিশ্চিত যে আফ্রিকান শামানরা ভবিষ্যতে তাকে আর চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিততে দেবে না। গার্দিওলার জন্য এটা গোটা আফ্রিকার অভিশাপ হয়ে থাকবে। জীবনই দেখাবে আমি সত্যি বলছি, নাকি মিথ্যে।’

তোরেকে যেভাবে দল থেকে বাদ দিয়েছেন গার্দিওলা সেটাকে তো ‘অপরাধ’ বলেছেনই, সেলুক আরও জানিয়েছেন, ব্যক্তি গার্দিওলার একটা প্রশংসাও করা সম্ভব নয়। বললেন, ‘গার্দিওলার মানবিক যত বৈশিষ্ট্য আছে, তা সম্পর্কে একটা প্রশংসাও করা যাবে না। আর যেভাবে সে ইয়ায়ার সিটি ক্যারিয়ার শেষ করে দিয়েছে, তা কোনো ভুল নয়, তা রীতিমতো অপরাধ।’

সে অপরাধেই আফ্রিকাকে নিজের বিরুদ্ধে দাঁড় করিয়ে দিয়েছেন গার্দিওলা। শেষ কয়েক মৌসুমে যেভাবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায় নিচ্ছেন, তাতে সেলুকের সে কথা বিশ্বাস না করে উপায় কী!

 

চস/আজহার

ads here