ডিপিএল

সৌম্যের ফিফটিতে গাজী গ্রুপের জয়

21
  |  সোমবার, জুন ৭, ২০২১ |  ৫:৫৭ অপরাহ্ণ
ads here

শুরুটা করেও ইনিংস আগাতে পারছিলেন না। তিন ম্যাচে ব্যর্থতা কাটিয়ে অবশেষে ছন্দ পেলেন সৌম্য সরকার। তার ফিফটিতে রান তাড়ায় সহজ জয় পেল গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স।

ads here

বিকেএসপির চার নম্বর মাঠে বোলাররাই কাজটা করে দিয়েছিলেন সহজ। সেই সহজ পথে কোন ভুল করেনি গাজীর ব্যাটসম্যানরা। লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জকে ১৩২ রান আটকে দেওয়ার পর ১৩ বল আগে ওই পুঁজি পেরিয়ে ৭ উইকেটে জিতেছে তারা। দলের জয়ে সবচেয়ে বড় অবদান সৌম্যের। ৪৩ বলে ৪ বাউন্ডারি, ২ ছক্কায় ৫৩ রান করেছেন তিনি।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টিতে শক্ত দল গড়েও চতুর্থ ম্যাচে গিয়ে দ্বিতীয় জয়ের দেখা পেল গাজী। অন্যদিকে চার ম্যাচে বৃষ্টিতে পাওয়া কেবল এক পয়েন্ট ঝুলিতে রূপগঞ্জের।

সোমবার দুপুরের ম্যাচে ১৩৩ রান তাড়ায় শেখ মেহেদী হাসানকে নিয়ে ওপেন করতে নামেন সৌম্য। ইনিংসের চতুর্থ ওভারে ১৪ বলে ১৩ করে মোহাম্মদ শহিদের শিকার হন মেহেদী।

এরপর মুমিনুল হককে নিয়ে ম্যাচ জেতানো জুটি পেয়ে যান সৌম্য। দুই বাঁহাতির জুটিতে আসে ৮২ রান। ফিফটি পেরিয়ে ১৪তম ওভারে কাজি অনিকের শিকার হন সৌম্য। ততক্ষণে তাদের দল জয়ের একদম কিনারে।

খানিক পর ২৯ বলে ৩৪ করা মুমিনুলও বিদায় নেন। কিন্তু বিপদের কোন পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। অসুস্থতা কাটিয়ে ফেরা ইয়াসির আলি রাব্বিকে নিয়ে বাকি কাজ অনায়াসে সেরেছেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে যাওয়া রূপগঞ্জের ইনিংসে প্রথম ওভারেই আঘাত হানেন শেখ মেহেদী। কোন রান আনার আগেই ওপেনার আজমির আহমেদকে হারায় তারা। মেরে খেলার নামডাক থাকলেও মেহেদী মারুফ ছিলেন মন্থর, অধিনায়ক নাঈম ইসলামও তাই। আল-আমিন জুনিয়র, জাকির আলির ব্যাট ছিল নিষ্প্রভ। ছয়ে নেমে সাব্বির রহমান ২১ বল খুইয়ে করতে পারেন ১৮ রান। রূপগঞ্জের ইনিংস হাঁটে শম্বুক গতিতে। সোহাগ গাজী করেন ২০ বলে ২১। শেষ দিকে কাজি অনিক ৬ বলে ১৩ করলে কিছুটা ভদ্রস্থ হয় তাদের স্কোর। উইকেট মন্থর থাকলেও এত অল্প রান নিয়ে ম্যাচ জেতা আসলে তাদের পক্ষে সম্ভব ছিল না।

 

চস/আজহার

ads here