ঢাকায় আসছেন ১২ দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ শতাধিক অতিথি

98
ads here

ঢাকায় ইন্ডিয়ান ওশান রিম অ্যাসোসিয়েশনের (আইওআরএ) ব্লু- ইকোনমি বা সমুদ্র অর্থনীতি বিষয়ক মন্ত্রী পর্যায়ের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামী ৪ ও ৫ সেপ্টেম্বর। আয়োজক দেশ বাংলাদেশের আমন্ত্রণে অস্ট্রেলিয়া, ইরান এবং শ্রীলঙ্কাসহ মোট ১২ দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও শতাধিক অতিথি এই সম্মেলনে যোগ দিতে ঢাকায় আসছেন।  এ সম্মেলনকে ঘিরে ঢাকার একাধিক পাঁচতারা হোটেলসহ গোটা শহরে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। বিশেষ করে কূটনৈতিক এলাকা যেমন গুলশান বনানী বারিধারাকে নিরাপত্তা বলয়ে নেয়া হয়েছে। সম্মেলনের ভেন্যু রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালসহ সোনারগাঁও, সুন্দরবন, রেডিসন, ফারস ইন্টারন্যাশনাল, হোটেল পুর্বানীসহ পাঁচতারা হোটেল ও তার আশপাশ এলাকা সিসিটিভির আওতায় আনা হয়েছে। পাশপাশি প্রতিটি হোটেল ও রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবনগুলোতে ডগস্কোয়াড দিয়ে সুইপিং করানো হয়েছে। সেখানে অতিরিক্ত গোয়েন্দা সদস্য এবং র‌্যাব মোতায়েন করা হয়েছে। প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ সড়কের মোড়ে মোড়ে নিরাপত্তা চৌকি বসিয়ে তল্লাশি করা হচ্ছে। এছাড়া সচিবালয়, ব্যাংক বীমা ও কেপিআই এলাকায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সতর্ক পাহারা বসানো হয়েছে।

ads here

এ বিষয়ে ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া জানান, আগামী ৪ ও ৫ সেপ্টেম্বর ঢাকায় মন্ত্রী পর্যায়ের ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলের জোট আইওআরএর ব্লু-ইকোনমি মিনিস্টারিয়েল কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ১২ দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ রাষ্টীয় অতিথিরা ঢাকার পাঁচতারা হোটেলে থাকবেন। পাশাপাশি রাষ্টীয় অতিথি ভবনে বৈঠক করবেন। সম্মেলন উপলক্ষে হোটেল, অতিথি ভবনসহ রাস্তা-ঘাটে ব্যাপক তল্লাশি করা হবে। এ বিষয়ে জঙ্গি হুমকি না থাকলেও বিষয়টি মাথায় রেখেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সতর্ক থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। কূটনৈতিক সূত্র বলেছে, রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া তৃতীয় আঞ্চলিক এই সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এবারের আইওআএর তৃতীয় আঞ্চলিক এই সম্মেলনের মূল প্রতিপাদ্য হচ্ছে, ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলের সব সম্ভাবনার সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করে টেকসই সমুদ্র অর্থনীতিকে উৎসাহিত করা।

সম্মেলনের সার্বিক আয়োজক পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মেরিটাইম ইউনিট থেকে জানা যায়, সম্মেলনে ২২টি সদস্য রাষ্ট্র এবং ৯টি ডায়ালগ পার্টনারসহ মোট ৩১টি রাষ্ট্রের প্রতিনিধি যোগ দিচ্ছেন। যার মধ্যে রয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী, ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী, শ্রীলঙ্কার পররাষ্ট্রমন্ত্রী, সিসিলিসের পররাষ্ট্রমন্ত্রী, কেনিয়ার কৃষি ও মৎস্যমন্ত্রী, মরিশাসের সমুদ্র অর্থনীতি বিষয়ক মন্ত্রী, মাদাগাস্কারের কৃষিমন্ত্রী, মালদ্বীপের মেরিন রিসোর্স এন্ড এগ্রিকালচার মিনিস্টার, সাউথ আফ্রিকার পরিবেশ বন ও মৎস্যমন্ত্রী, সোমালিয়ার পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী, থাইল্যান্ডের পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টা, কমোরসের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছাড়াও ইন্টারন্যাশনাল সি-বেড অথোরিটির সেক্রেটারি জেনারেল এবং আইওআরএর সেক্রেটারি জেনারেল সম্মেলনে থাকছেন। প্রসঙ্গত, আইওআরএ যাত্রা শুরু করেছিল ১৯৭৭ সালের ৭ মার্চ ।

চস/সোহাগ

ads here