মর্ডানার ২৫ লাখ ডোজ টিকা আসছে কাল

29
 ডেস্ক রিপোর্ট |  বৃহস্পতিবার, জুলাই ১, ২০২১ |  ৩:৫১ অপরাহ্ণ
ads here

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে শুক্রবার (২ জুলাই) মার্কিন ওষুধ কোম্পানি মডার্নার তৈরি ২৫ লাখ ডোজ টিকা আসছে। বিশ্বজুড়ে টিকা সরবরাহের আন্তর্জাতিক প্লাটফর্ম কোভ্যাক্স থেকে পাঠানো হচ্ছে এসব টিকা। মর্ডানার টিকা এলে তা হবে দেশে করোনাভাইরাসের চতুর্থ টিকা।

ads here

বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম প্রধান।

তিনি জানান, আগামীকাল দেশে মডার্নার টিকা আসবে। সময়টা এখনও নিশ্চিত হয়নি। সময়টা নিশ্চিত হওয়ার পর বিস্তারিত আপনাদের জানানো হবে। টিকা গ্রহণের অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকও উপস্থিত থাকতে পারেন।

এর আগে বুধবার (৩০ জুন) সংসদে এক প্রশ্নোত্তর পর্বে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আগামী মাসের ২ থেকে ৩ তারিখের মধ্যে মডার্নার ২৫ লাখ টিকা চলে আসবে। চীনা টিকাও একই সময়ে চলে আসবে। কোভ্যাক্স সুবিধা থেকে ডিসেম্বরের মধ্যে ছয় কোটি ৩০ লাখ টিকা পাব। তিনি বলেন, সিনোফার্মের সঙ্গে দেড় কোটি ডোজ টিকার চুক্তি হয়েছে। আমাদের হাতে ডিসেম্বর পর্যন্ত ১০ কোটি টিকার ব্যবস্থা রয়েছে, যা দিয়ে পাঁচ কোটি লোককে টিকা দিতে পারব।

গত ২৭ জুন ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর দেশে মডার্নার টিকার জরুরি ব্যবহারে অনুমোদন দেয়। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে টিকাটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর জানিয়েছে, মডার্নার টিকা ১৮ বছর বা এর বেশি বয়সীদের দেওয়া যায়। প্রত্যেককে এই টিকার দুই ডোজ করে দিতে হয়। টিকাটির প্রথম ডোজ নেওয়ার ৪ সপ্তাহ পর দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া যাবে। মাইনাস ১৫ থেকে মাইনাস ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় এ টিকা সংরক্ষণ করতে হয়। টিকাটি ব্যবহারের আগে ২-৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় ৩০ দিন এবং ৮-২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় ১২ ঘণ্টা পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যাবে।

মডার্নার এই টিকা গত ২২ জানুয়ারি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন পেয়েছে। এর আগে গত বছরের ১২ ডিসেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের এফডিএ এবং ৬ জানুয়ারি ইউরোপিয়ান মেডিসিন অথরিটির অনুমোদন পায় এটি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, মর্ডানার টিকা করোনার বিরুদ্ধে ৯৪ দশমিক ১ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকর। বাংলাদেশে এই টিকার স্থানীয় প্রতিনিধি এমএনসি অ্যান্ড এএইচ, স্বাস্থ্য অধিদফতর, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়।

চস/স

ads here