শুধু পরিবেশ নয়, সিআরবি রাষ্ট্র ও উন্নয়নের নৈতিকতারও বিষয়

43
 হোসেন জিল্লুর রহমান |  বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১২, ২০২১ |  ৩:৩১ অপরাহ্ণ
ads here

উন্নয়ন কোনো চাপিয়ে দেয়া বা একমাত্রিক বিষয় হতে পারে না। জনচাহিদার সঠিক প্রতিফলনে ও গোষ্ঠী-কল্যাণের পরিবর্তে বৃহত্তর জনকল্যাণ নিশ্চিত করাই এসডিজি যুগের উন্নয়ন ধারণার মূলমন্ত্র।

ads here

সিআরবি প্রাঙ্গণে অনভিপ্রেত নির্মাণের উদ্যোগের প্রতিবাদে বেশ কিছুদিন ধরে চট্টগ্রামের বৃহত্তর নাগরিক সম্প্রদায় এক অভূতপূর্ব জাগরণী আন্দোলনের মধ্য দিয়ে শুধু চট্টগ্রামবাসীকে নয়, সারাদেশের সচেতন মহলকে অনুপ্রাণিত ও আশান্বিত করে তুলছে।

সিআরবি বিষয়ক আলোচনা কোন খুচরা কারিগরি সমাধানের আলোচনা নয়। এটি সামগ্রিক সিআরবি এলাকার পরিবেশ সংরক্ষণের আলোচনা। এটি পর্দার অন্তরালের অনৈতিক গোষ্ঠীস্বার্থকে বৃহত্তর জনস্বার্থ পদদলিত না করতে দেওয়ার আলোচনা। এটি চট্টগ্রামের গ্লোবাল সিটির স্বপ্নকে অসঙ্গতি ও বিশৃংখল উন্নয়নের বাহু থেকে মুক্ত করার আলোচনা।

চট্টগ্রামের স্বার্থে চট্টগ্রামের সচেতন নাগরিক সম্প্রদায় তাদের উদ্বেগ, তাদের যুক্তি, তাদের স্বপ্ন, তাদের নৈতিক শক্তি দৃশ্যমান করেছে। গোষ্ঠীস্বার্থ সাময়িকভাবে প্রবল হতে পারে। কিন্তু নৈতিক যুক্তি ও নৈতিক শক্তির সামনে এই গোষ্ঠীস্বার্থ আজ সম্পূর্ণভাবে প্রশ্নবিদ্ধ। রাষ্ট্রের সচেতন মহলের নাগরিকদের এই নৈতিক আন্দোলনের মূল বার্তা অনুধাবন করা অত্যন্ত জরুরি।

মধ্যম আয়ের বাংলাদেশের স্বপ্ন অনেক অর্থে চট্টগ্রামকে প্রকৃত অর্থেই একটি গ্লোবাল সিটিতে সার্থকভাবে উন্নীত করার মধ্যে নিহিত। আজকের সিআরবি আন্দোলন ও উম্মুক্ত সিআরবি এলাকার সঠিক সংরক্ষণ এই গ্লোবাল সিটি স্বপ্নেরই অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ।

হোসেন জিল্লুর রহমান
অর্থনীতিবিদ ও সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা

 

চস/আজহার

ads here