সাফ নারী টুর্ণামেন্টের সেরা খেলোয়াড় শাহেদা আক্তার রিপা

64
  |  বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ২৩, ২০২১ |  ২:৩৬ অপরাহ্ণ

শক্তিধর ভারতকে হারিয়ে সাফ ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ অনুর্ধ-১৯ দলের সেরা খেলোয়াড় শাহেদা আক্তার রিপার জম্মস্থান উখিয়ায়। এ জয়ের পর রীতিমতো উৎসবের পরিবেশ তৈরি হয়েছে গ্রামের বাড়িতে।

ads here

গতকাল সন্ধ্যায় ঢাকা কমলাপুর স্টেডিয়ামে ভারতকে ০-১ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ টুর্ণামেন্টে বাংলাদেশ হয়ে অনুর্ধ ১৯ নারী দলের শ্রীলংকার বিরুদ্ধে হ্যাটট্রিক ও ভুটানের বিরুদ্ধে দুটি গোল করে করেন রিপা। ভারতের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ জয়ের পিছনে সাহেদা আক্তার রিপার অসাধারণ নৈপুণ্য ছিল। ৮০ মিনিটের মাথায় শাহেদার পাস থেকে করা গোলেই বাংলাদেশের কাঙ্খিত জয় পায়।

খেলা শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী সাফ নারী টুর্ণামেন্টে সেরা গোলদাতা ও সেরা খেলোয়াড় হিসেবে দুটি ট্রফি তুলে দেন উখিয়ার মেয়ে শাহেদ আক্তার রিপার হাতে।

উখিয়ার জালিয়াপালং ইউনিয়নের সোনাছড়ি গ্রামের জালাল আহমদ ও শামসুন্নাহারের দ্বিতীয় কন্যা হচ্ছে শাহেদা আক্তার রিপা। সে বর্তমানে বিকেএসপির দশম শ্রেণীর ছাত্রী। ২২ সালে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে।

বুধবার রাতে কথা হয় শাহেদা আকতার রিপার পিতা জালাল আহমদের সাথে। বাংলাদেশ জয়ের পিছনে তার মেয়ের অসামান্য অবদান থাকায় তিনি ভীষন খুশি। তিনি বলেন, শাহেদা কেবল আমার মেয়ে নয় সে বাংলাদেশের অহংকার এবং সকলের মেয়ে।

তিনি আরো বলেন, টিভিতে খেলায় দেখার সময় মেয়ের নৈপুণ্য, ফুটবল শৈলী দেখে খুবই ভালো লেগেছিল। আর বাংলাদেশের জয় এনে দিতে পারায় আল্লাহর কাছে শুকরিয়া জ্ঞাপন করেন তিনি।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ছোটকালে আমার মেয়ের ফুটবল খেলা দেখে আমি উৎসাহ দিতাম। স্বপ্ন ছিল একদিন সে অনেক বড় মাপের ফুটবলার হবে। আমার স্বপ্ন বিশ্বকাপে যেন আমার মেয়ে অংশ নিতে পারে।

২০১৭ সালে বিকেএসপিতে ভর্তি হয়ে ভারতে খেলার সুযোগ পান সাহেদা আক্তার রিপা। ওই বছর ভারতের বিরুদ্ধে ৪০ সেকেন্ডের মাথায় দ্রুততম গোল করে এবং ২০১৮ সালে অনুর্ধ ১৫ ভুটানের বিরুদ্ধে ৭৩ ও ৮৩ মিনিটে ২টি গোল করে বাংলাদেশের হয়ে নারী ফুটবলে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার সুযোগ পান।

চস/আজহার

ads here