সংঘাত-সংঘর্ষের মধ্যে দিয়ে বোয়ালখালীতে ভোট শুরু

34
  |  বুধবার, জানুয়ারি ৫, ২০২২ |  ১২:০৫ অপরাহ্ণ

পঞ্চম ধাপের ইনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের চট্টগ্রামের বোয়লখালী উপজেলার ৭ ইউপিতে শুরু হয়েছে ভোট গ্রহণ। ভোট গ্রহণ শুরুর আগেই আহলা করলডেঙ্গা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল হারুণ রিপনসহ কয়েকজন আহত হন।

ads here

আজ ৫ জানুয়ারি, বুধবার সকাল ৭ টার দিকে লুদি শিকদার পাড়া এলাকায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহত রিপন আশঙ্কাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন আছেন।

দক্ষিণ জেলা ছাত্র লীগ সভাপতি মো. বোরহান উদ্দিন বলেন, আহলা করলডেঙ্গা ইউনিয়নের লুধি শিকদার পাড়া এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। এসময় রিপনের মাথায় মারাত্মকভাবে আঘাত করা হয়েছে। তার অবস্থা সংকটাপন্ন। এ ঘটনায় আরো বেশ কয়েকজন আহত হয়ে বলে জানান তিনি।

এর আগে মঙ্গলবার রাতে শ্রীপুর-খরণদ্বীপ ইউপিতে টাকা বিলির সময় ৬জনকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছেন জনতা। তাদের কাছ থেকে ১লাখ ২০হাজার টাকা ও আনারস প্রতীকের বিভিন্ন স্টিকার, কার্ড উদ্ধার করা হয়। তাদের মধ্যে একজনের পা ভেঙ্গে যাওয়ায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে বলে জানা গেছে। বাকিদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমেপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে উপসহকারী কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসার, মো. জাহেদ। তিনি বলেন, রাতে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত শাকপুরা ইউনিয়নের মো. ইদু ও বাহাদুল আলম নামের দুইজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এদিকে সকাল ৮টা থেকে ৭ ইউপির ৬৪টি কেন্দ্রে একযোগে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে বলে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. নুরুল ইসলাম জানান, সুষ্ঠু ও অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য সকল প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। তবে আহলা করলডেঙ্গা ও শ্রীপুর-খরণদ্বীপ ইউনিয়নে কয়েক বিচ্ছিন্ন ঘটনার খবর পেয়ে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

সংঘর্ষের বিষয়ে বোয়ালখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল করিম বলেন, টাকা বিলির সময় জনতার হাতে আটক ৪জনকে পুলিশ গ্রেফতার করেছেন। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। উপজেলা ৭ ইউনিয়নের আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় কাজ করছেন পুলিশ, বিজিবি, র‌্যাব ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

চস/আজহার

ads here