মহিলা লীগের সাবেক নেত্রী স্বর্ণ চোরাচালানে আটক

291
মহিলা লীগের সাবেক নেত্রী স্বর্ণ চোরাচালানে আটক
ads here
খুলনায় স্বর্ণ চুরি চক্রের মূল হোতা ও মহিলা শ্রমিক লীগের মহানগর শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাদিয়া আক্তার মুক্তা (৩২) আটক হয়েছেন।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে খুলনা মহানগর পুলিশের (কেএমপি) মুখপাত্র অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) মনিরুজ্জামান মিঠু সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে এই তথ্য জানান।

ads here

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, খুলনা থানায় চুরির মামলার মূল হোতা সাদিয়া আক্তার মুক্তাকে গত সোমবার দিবাগত রাতে তাঁর হরিণটানা এলাকার বাসা থেকে আটক করা হয়। এই সময় মুক্তার বাড়ি থেকে চুরি হওয়া ১২ ভরি তিন আনা চোরাই স্বর্ণ এবং স্বর্ণ বিক্রির দুই লাখ ৮২ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। মহিলা লগের সাবেক এই নেত্রীর বিরুদ্ধে খিলগাঁও থানায়ও স্বর্ণালংকার চুরির মামলা রয়েছে। গত সোমবার মুক্তাকে আটক করা হলেও অভিযান অব্যাহত থাকার কারণে তথ্য প্রকাশ করা হয়নি। এখন পর্যন্ত চোরাই স্বর্ণালংকার চক্রের সহযোগী ফারুক ও আবদুল আলীমকে আটক করা হয়েছে। চক্রের অন্য সহযোগীদের আটকের চেষ্টা চলছে।

আরো পড়ুন: দেশ জ্বলছে, তাই উৎসব করেননি শ্রীলেখা

জাতীয় শ্রমিক লীগের খুলনা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক রণজিত কুমার ঘোষের সঙ্গে যোগাযোগ করে সাদিয়া আক্তার মুক্তার পদের ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি জানান, মুক্তা একসময় মহানগর মহিলা শ্রমিক লীগ শাখার সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। বর্তমানে তাঁর কোনো পদ নেই। এমনকি রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত নন তিনি।

মুক্তা খুলনা নগরীর সোনাডাঙ্গা গুহা রেস্টুরেন্টের মালিক শুকুর আলীর স্ত্রী। তাঁরা তিন মাস খুলনায় থাকলেও পরে হঠাৎ করে উধাও হয়ে যান। তাঁদের চলাচল ও গতিবিধি রহস্যজনক।

ads here