২৯ মার্চ হাম-রুবেলা টিকাদান বন্ধ

161
২৯ মার্চ হাম-রুবেলা টিকাদান বন্ধ
ads here
চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) এলাকায় বুধবার (১৮ মার্চ) শুরু হওয়া হাম-রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন স্থগিত থাকবে ২৯ মার্চ। চসিক নির্বাচনের কারণে এদিন ক্যাম্পেইন স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে । তাই চসিক এলাকায় টিকাদান ক্যাম্পেইন ১১ এপ্রিলের পরিবর্তে ১২ এপ্রিল শেষ হবে।

আজ রবিবার (১৫ মার্চ) দুপুরে চসিক জেনারেল হাসপাতালে সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানান চসিকের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আকতার চৌধুরী। তিনি বলেন, ৯ মাস থেকে ১০ বছরের কম বয়সী ৭ লাখ ৫২ হাজার শিশুকে এক ডোজ হাম-রুবেলা (এমআর) টিকা দেয়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

ads here

আগে হাম বা এমআর টিকা পেয়ে থাকলেও কিংবা হাম-রুবেলা হলেও নির্দিষ্ট বয়সের সব শিশুকে এক ডোজ এমআর টিকা দেয়া হবে। প্রথম ধাপে ১৮-২৪ মার্চ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এবং দ্বিতীয় ধাপে ২৮ মার্চ-১২ এপ্রিল সব নিয়মিত স্থায়ী টিকাদান কেন্দ্রে এ টিকা দেয়া হবে। নগরীর ৪১ ওয়ার্ডের ১ হাজার ১৪৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কিন্ডারগার্টেন, ফোরকানিয়া মাদ্রাসা ও স্থায়ী বা অস্থায়ী টিকাদান কেন্দ্রে এ টিকা দেয়ার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

আরো পড়ুন: দেশে হোম কোয়ারেন্টাইনে ২৩১৪ জন: আইইডিসিআর

প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা বলেন, হাম-রুবেলা একটি ভাইরাসজনিত মারাত্মক সংক্রামক রোগ। হাম রোগ সাধারণত একজন আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে আসা অন্যদের মধ্যে হাঁচি বা কাশির মাধ্যমে ছড়ায়। শিশু ছাড়াও যেকোনো বয়সে হাম হতে পারে।

অন্যদিকে রুবেলা রোগের জীবাণু প্রধানত বাতাসের সাহায্যে শ্বাসতন্ত্রের মাধ্যমে সুস্থ শরীরে প্রবেশ করে এবং রুবেলা রোগের লক্ষণ দেখা দেয়। গর্ভবতী মায়েরা গর্ভের ৩ মাসের সময় রুবেলা ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হলে শতকরা ৯০ ভাগ ক্ষেত্রে মা থেকে গর্ভের শিশু আক্রান্ত হতে পারে। সেক্ষেত্রে গর্ভপাত এমনকি গর্ভের শিশুর মৃত্যুও হতে পারে।

শিশু জন্মগত বিভিন্ন জটিলতা নিয়ে জন্ম গ্রহণ করে যা কনজেনিটাল রুবেলা সিনড্রোম (সিআরএস) নামে পরিচিত। এ রোগ এবং জটিলতা থেকে বাঁচার সর্বোৎকৃষ্ট উপায় হচ্ছে সঠিক সময়ে শিশুকে রুবেলার টিকা দিয়ে সুরক্ষিত রাখা। এ সময় চসিকের শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি কাউন্সিলর নাজমুল হক ডিউক, ডা. মোহাম্মদ আলী, ডা. সুশান্ত বড়ুয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

চস/সোহাগ

ads here