সেনাবাহিনীর ১৭ টিম নেমেছে চট্টগ্রামে

232
  |  বুধবার, মার্চ ২৫, ২০২০ |  ২:৫৫ অপরাহ্ণ
সেনাবাহিনী
ads here
করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবিলায় চট্টগ্রামে জেলা প্রশাসনের সঙ্গে অভিযানে নেমেছে সেনাবাহিনীর ১৭ টিম। তিন পার্বত্য জেলাসহ সেনাবাহিনীর মোট ৪৩টি টিম এখন করোনাভাইরাস মোকাবিলায় চট্টগ্রামের মাঠে আছে।

বুধবার (২৫ মার্চ) সকাল থেকে জেলা প্রশাসনের ৬ জন ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর টিম নগরজুড়ে অভিযান চালাচ্ছে। নগরীর খুলশী এলাকায় বিদেশি নাগরিকসহ পাঁচজনকে বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেনটাইনে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া একটি কোরিয়ান রেস্টুরেন্ট সিলগালা করা হয়েছে।

ads here

চট্টগ্রাম সেনানিবাসের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, মূলত তিনটি বিষয়ে তারা কাজ করছেন। এগুলো হচ্ছে- করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা ব্যবস্থা তদারক, বিদেশ থেকে আসা ব্যক্তিদের হোম কোয়ারেনটাইন ব্যবস্থা তদারক এবং জনসমাগম ঠেকানো।

মেজর অথবা ক্যাপ্টেন পদমর্যাদার সেনা কর্মকর্তার নেতৃত্বে সকাল ৮টার আগেই সেনানিবাস থেকে চট্টগ্রাম নগরী ও উপজেলায় পৌঁছে গেছে ১৭টি টিম। এর মধ্যেই পার্বত্য চট্টগ্রামেও পৌঁছেছে আরও ২৬টি টিম।

আরো পড়ুন: সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী

নগরীর খুলশী, আকবর শাহ ও পাহাড়তলী এলাকায় জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে সকাল থেকে অভিযান চলছে। সেনা সদস্যরা হ্যান্ড মাইকে লোকজনকে জটলা তৈরি না করার জন্য এবং পরস্পর বিচ্ছিন্ন হয়ে চলাচলের অনুরোধ করছেন। এর ব্যত্যয় হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারিও দিচ্ছেন সেনাসদস্যরা।

তৌহিদুল জানান, মঙ্গলবার নগরীর খুলশীর ২ নম্বর সড়কে ১২/২ নম্বর ভবনে দক্ষিণ কোরিয়ানদের একটি রেস্টুরেন্ট বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু বুধবার সকালে গিয়ে সেটি খোলা দেখা যায় এবং সেখানে দুজন কোরিয়ান ও তিনজন বাংলাদেশি নাগরিককে পাওয়া যায়। অভিযানকারী দল পাঁচজনকে বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেনটাইনে পাঠিয়ে রেস্টুরেন্টটি সিলগালা করে দিয়েছে।

নগরীতে যারা হোম কোয়ারেনটাইনে আছেন, সেনা সদস্যদের নিয়ে ম্যাজিস্ট্রেটরা তাদের এলাকায় যাচ্ছেন বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

চস/আজহার

ads here