টি-টুয়েন্টিতে নাম্বার ওয়ান ডেভিড মালান

81
  |  বুধবার, সেপ্টেম্বর ৯, ২০২০ |  ৪:৫৬ অপরাহ্ণ
ads here

ডেভিড মালান, ইংলিশদের জন্য এখন অন্যতম ভরসার প্রতীক। সদ্য সমাপ্ত টি-টুয়েন্টি সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ব্যাট হাতে দারুণ পারফরম্যান্স উপহার দিয়েছেন এই ড্যাশিং ব্যাটসম্যান। ৩৩ বছর বয়সী এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান প্রথম ম্যাচে ৪৩ বলে ৬৬ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন। এরপর দ্বিতীয় এবং তৃতীয় ম্যাচে যথাক্রমে করেন ৪২ ও ২১ রান।

ads here

এই পারফরম্যান্সের পর আইসিসি টি-টুয়েন্টি র‍্যাংকিংয়েও উন্নতি হয়েছে মালানের। ব্যাটসম্যানদের র‍্যাংকিংয়ে চার ধাপ এগিয়ে এক নম্বর উঠে এসেছেন এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। পাশাপাশি পাকিস্তানের টি-টুয়েন্টি দলপতি বাবর আজমকেও টপকে গেছেন তিনি। গত বছরের নভেম্বরে প্রথমবারের মতো র‍্যাংকিংয়ের দুই নম্বরে উঠেছিলেন মালান। এবার নিজের ব্যাটিং কারিশমা দেখিয়ে শীর্ষে জায়গা করে নিলেন এই ইংলিশম্যান।

এদিকে মালান ছাড়াও ব্যাটসম্যানদের র‍্যাংকিংয়ে উন্নতি হয়েছে জনি বেয়ারস্টো এবং জস বাটলারের। সিরিজে ৭২ রান করা ওপেনার বেয়ারস্টো তিন ধাপ এগিয়ে ক্যারিয়ার সেরা ১৯ নম্বরে উঠে এসেছেন। অপরদিকে শেষ ম্যাচে অনুপস্থিত থাকা বাটলার ৪০ নম্বর থেকে ২৮ নম্বরে জায়গা করে নিয়েছেন। প্রথম দুই ম্যাচ মিলিয়ে ১২১ রান সংগ্রহ করেন তিনি।

অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানদের মধ্যে র‍্যাংকিংয়ে উন্নতি হয়েছে অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চের। সিরিজে ১২৫ রান করা ফিঞ্চ তিন নম্বরের জায়গাটি ফিরে পেয়েছেন। এছাড়া ব্যাটসম্যানদের ৬ নম্বর জায়গাটি ধরে রেখেছেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। একই সঙ্গে টি-টুয়েন্টি অলরাউন্ডারদের র‍্যাংকিংয়ে এক ধাপ এগিয়ে দুই নম্বর উঠে এসেছেন তিনি।

টি-টুয়েন্টি বোলারদের র‍্যাংকিংয়ে উন্নতি হয়েছে দুই দলের বোলারদেরই। ইংল্যান্ডের লেগ স্পিনার আদিল রশিদ সিরিজে ৬ উইকেট পাওয়ায় দুই ধাপ এগিয়ে সাত নম্বরে জায়গা করে নিয়েছেন। অপরদিকে অস্ট্রেলিয়ার বাঁহাতি স্পিনার অ্যাস্টন অ্যাগার পাঁচ উইকেট নিয়ে তিন নম্বরে উঠে এসেছেন।

এছাড়া সিরিজে তিন উইকেট শিকার করা অজি পেসার কেন রিচার্ডসন প্রথমবারের মতো সেরা দশ বোলারের তালিকায় জায়গা পেয়েছেন। আরেক পেসার মিচেল স্টার্ক সাত ধাপ এগিয়ে ১৮ নম্বরে উঠে এসেছেন। আর ইংল্যান্ডের পেসার মার্ক উড ৪১ ধাপ এগিয়ে ৭৯তমতে অবস্থান করছেন।

 

 

চস/আজহার

ads here