বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ৭ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ

80
  |  মঙ্গলবার, অক্টোবর ৬, ২০২০ |  ১:৫৩ অপরাহ্ণ
গণধর্ষণ
ads here

বরিশালের মুলাদীতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে স্থানীয় মাদরাসার ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

ads here

ধর্ষণের শিকার ছাত্রী ও তার পরিবার সূত্রে জানা যায়, মুলাদী উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের পশ্চিম নাজিরপুর গ্রামের মোকছেদ হাওলাদারের ছেলে মো: নাইম হাওলাদার ৭ম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করায় মেয়েটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। বর্তমানে সে ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

ছাত্রীর অভিযোগ, নাইম হাওলাদার তাকে ধর্ষণ করে ও কাউকে না বলার জন্য চাকু দেখিয়ে ভয় দেখায়। কাউকে বললে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। নাইম একপর্যায়ে মেয়েটিকে ঢাকায় নিয়ে বিয়ে করার কথা দেয়। কিন্তু দীর্ঘ দিন যাবৎ মেয়েটির কোনো খোঁজ খবর না নেয়ায় সে তার পরিবারকে বিষয়টি জানায়। মেয়ের পরিবার অভিযুক্ত নাইম হাওলাদারের পরিবারের সাথে যোগাযোগ করলে তারা বিষয়টি এড়িয়ে যান ও মেয়ের পরিবাকে হুমকি দেন।

এলাকাবাসী বলছে, মেয়ের পরিবারের তুলনায় অভিযুক্ত ছেলের পরিবার অনেক প্রভাবশালী তাই মেয়ের পরিবার অসহায় হয়ে পড়েছে। মেয়ের বাবা জানান বিষয়টি জানতে পেরে নাজিরপুর ইউনিয়নের দু’জন ইউপি সদস্য ছেলের পরিবারের সাথে কথা বললে সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দেন। কিন্তু তারা এক দিন পর জানায় এ ব্যাপারে ছেলের পরিবার কোনো সমাধান চান না। সমাধান না পেয়ে নির্যাতিত ছাত্রীর বাবা ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা মেয়েকে নিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন।

তার কাছে থানা প্রশাসনের নিকট অভিযোগ করছেন কিনা তিনি বলেন, ছেলের পরিবার প্রভাবশালী হওয়ায় ও ভয়ভীতি দেখানোর কারণে ভয়ে এখনো অভিযোগ করি নাই।

অভিযুক্ত নাইম হাওলাদার পরিবারের সহযোগীতায় গা ঢাকা দিয়েছে। নাইমের বাবার বক্তব্য নেয়ার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। এলাকাবাসী ও ছাত্রীর পরিবারের প্রশাসনের নিকট দাবি অবিলম্বে ধর্ষককে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হোক।

চস/আজহার

ads here