সময় বেঁধে দিয়ে বন্ধ তার কাটার অভিযান

76
  |  রবিবার, অক্টোবর ১৮, ২০২০ |  ২:৫৫ অপরাহ্ণ
ads here

ইন্টারনেট ও কেবল টিভির ঝুলন্ত তার মাটির নিচে প্রতিস্থাপনে নভেম্বর পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়ে আপাতত তার অপসারণের অভিযান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত জানিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন।

ads here

রোববার দক্ষিণের নগরভবনে মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসের সঙ্গে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি) ও কেবল অপারেটর্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (কোয়াব) নেতাদের বৈঠকে এই সমঝোতা হয়।

বৈঠকের পর এক ব্রিফিংয়ে মেয়র তাপস বলেন, “দক্ষিণ সিটির পক্ষ থেকে রাস্তায় কোনো ঝুলন্ত তার আজকের পর থেকে কাটা হবে না। আমাদের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, তারা নিজ খরচে মাটির নিচ দিয়ে তারের সংযোগ নেবেন এবং সঙ্গে সঙ্গে উপরে ঝুলন্ত তার কেটে দেবেন।

“আর এটা আগামী নভেম্বরের মধ্যেই তারা শেষ করবেন বলে আমাদের কমিটমেন্ট দিয়েছেন। সে কারণেই আমরা তার কাটব না।”

ঝুলন্ত তার সরিয়ে মাটির নিচ দিয়ে নিতে সিটি করপোরেশনের রাস্তা খোঁড়ারও অনুমতি দেওয়া হয়েছে জানিয়ে মেয়র বলেন, সেই রাস্তা পরে সিটি করপোরেশনের খরচেই মেরামত করা হবে।
আইএসপিএবি সভাপতি এম এ হাকিম বলেন, “আজকে থেকেই আমরা ঝুলন্ত তার নামিয়ে মাটির নিচে সংযোাগের কাজ শুরু করে দেব। আশা করি নভেম্বরের মধ্যেই পারব।

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন এলাকায় ঝুলন্ত তারের জঞ্জাল সরাতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে যে অভিযান গতমাসে শুরু হয়েছিল, তা বন্ধের দাবিতে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিল আইএসপিএবি ও কোয়াব।

বিকল্প ব্যবস্থা না করে তার অপসারণের কাজ বন্ধ না করলে রোববার থেকে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত সারা দেশে ইন্টারনেট ও কেবল টিভি সেবা বন্ধের ঘোষণা ছিল তাদের।

তাদের এই ঘোষণায় উদ্বেগ জানিয়েছিলেন ব্যাংক খাতের কর্মকর্তারা। বিভিন্ন স্কুল কর্তৃপক্ষও তাদের অনলাইন ক্লাসের সময় পাল্টে সকালের বদলে রাতে ক্লাস নেওয়ার সিদ্ধান্ত জানিয়েছিল।

এই পরিস্থিতিতে শনিবার বিকালে আইএসপিএবির নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জাব্বার এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমদ পলক।
সেই বৈঠকে মন্ত্রীর আশ্বাস মেলার পর ‘আপাতত’ কর্মসূচি স্থগিত করার কথা জানিয়েছিলেন আইএসপিএবি সভাপতি আবদুল হাকিম।

রোববার দক্ষিণের মেয়রের সঙ্গে বৈঠকে তার অপসারণ অভিযান স্থগিত হওয়ায় এখন আর তারা ধর্মঘটে যাচ্ছেন না।

কোয়াবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এসএম আনোয়ার পারভেজসহ দুই সংগঠনের জ্যেষ্ঠ নেতারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

চস/আজহার

ads here