spot_img

৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, বৃহস্পতিবার
১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সর্বশেষ

ব্রিকসের সদস্যপদ পাচ্ছে ৬ দেশ

ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চীন এবং দক্ষিণ আফ্রিকার সমন্বিত অর্থনৈতিক জোট ব্রিকস। জোটের নতুন সদস্যপদ দেওয়ার জন্য ৬ দেশকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা বৃহস্পতিবার বলেছেন, আর্জেন্টিনা, মিসর, ইরান, ইথিওপিয়া, সৌদি আরব এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতকে সদস্যপদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, জোহানেসবার্গে অনুষ্ঠিত ব্রিকস শীর্ষ সম্মেলনে দেশগুলোকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। নতুন দেশগুলোর ব্রিকস সদস্যপদ ১ জানুয়ারি, ২০২৪ তারিখ থেকে কার্যকর হবে।

ব্রিকসের নেতারা তাদের জোট সম্প্রসারণ করার বিষয়ে সম্মত হয়েছেন। ২০১০ সালের পর এই প্রথম তারা কোনো সম্প্রসারণের সিদ্ধান্ত নিল। ২০০৯ সালের ১৬ জুন প্রথমে ব্রিক নামে জোটের যাত্রা শুরু হয়। পরে ২০১০ সালে জোটে দক্ষিণ আফ্রিকা শরিক হয়ে ব্রিকস নাম ধারণ করে। এরপর আর কোনো সদস্য নেয়টি তারা।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ বিন জায়েদ তার দেশকে ব্রিকসে অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছেন। ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ আলি ব্রিকসে প্রবেশকে তার দেশের জন্য একটি ‘মহান মুহূর্ত’ বলে অভিহিত করেছেন।

তবে ব্রিকসে যোগ দিতে আগ্রহী ছিল কয়েক ডজন দেশ। ব্রিকসের নতুন সদস্যপদ এমন সময়ে দেওয়া হয়েছে যখন ভূ-রাজনৈতিক মেরুকরণে বেইজিং এবং মস্কো এটিকে পশ্চিমের বিরুদ্ধে কার্যকর করার চেষ্টা করছে।

ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট লুইজ লুলা দা সিলভা বলেছেন, সৌদি আরব, আর্জেন্টিনা, ইথিওপিয়া এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত সবাই ব্রিকসে যোগ দিতে আগ্রহ দেখিয়েছে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ব্রিকস সদস্যপদ সম্প্রসারণকে স্বাগত জানিয়েছেন এবং বলেছেন নতুন সদস্যদের সঙ্গে অবিলম্বে কাজ শুরু করা উচিত।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, ব্রিকসে নতুন সদস্যদের যোগ করার মাধ্যমে জোট আরও শক্তিশালী হবে এবং যৌথ প্রচেষ্টায় নতুন গতি পাবে। চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বলেছেন, ব্রিকস হলো গুরুত্বপূর্ণ প্রভাবশালী দেশ। বিশ্ব শান্তি ও উন্নয়নের জন্য গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করছে ব্রিকস।

জোহানেসবার্গে চলমান তিন দিনের শীর্ষ সম্মেলনে বর্ধিতকরণ নিয়ে বিতর্ক আলোচ্য সূচির শীর্ষে রয়েছে। বিশ্বের জনসংখ্যার প্রায় ৪০ এবং বৈশ্বিক মোট দেশজ উৎপাদনের এক চতুর্থাংশ আসে ব্রিকসভুক্ত দেশগুলো থেকে। দক্ষিণ আফ্রিকার কর্মকর্তারা বলছেন, ৪০টির বেশি দেশ ব্রিকসে যোগ দিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে এবং ২২টি দেশ আনুষ্ঠানিকভাবে ভর্তি হতে চেয়েছে।

 

চস/আজহার

Latest Posts

spot_imgspot_img

Don't Miss