spot_img

৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, সোমবার
২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক

সর্বশেষ

আদালতে চুরি মামলায় হাজিরা দিতে এসে পুনরায় মোটরসাইকেল চুরি

মো. রিপন মোটরসাইকেল চোর চক্রের সক্রিয় সদস্য। তার বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম আদালতে মোটরসাইকেল চুরির মামলা বিচারাধীন রয়েছে। এসব মামলায় হাজিরা দিতে এসে ফিরে যাওয়ার সময় আদালত এলাকা থেকে বিশেষ কায়দায় মোটরসাইকেল চুরি করে রিপন।

চুরি করা এসব মোটরসাইকেল কুমিল্লার আব্দুল কাদের জিলানী প্রকাশ অভি ও কক্সবাজারের সজিবুল ইসলামের কাছে বিক্রি করে। কক্সবাজার থেকে ফেরার পথে আবারও একটি মোটরসাইকেল চুরি করে সেখানেই সজিবুলের কাছে বিক্রি করে। বিক্রি করে ফেরার পথে আরও একটি মোটরসাইকেল চুরি করে নিয়ে আসে এবং সেটি কুমিল্লার আব্দুল কাদের জিলানীর কাছে বিক্রি করে রিপন।

বুধবার (৪ অক্টোবর) চট্টগ্রাম কুমিল্লা ও কক্সবাজারে অভিযান চালিয়ে রিপনসহ চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে কোতোয়ালী থানা পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে ১৩টি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- পটিয়া উপজেলার কোলাগাঁও ইউনিয়নের আব্দুল আলীমের ছেলে রিপন (৩২), কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম থানার মৃত মনু মিয়ার ছেলে ও মহেশখালী থানার মাতারবাড়ির মোস্তাকের ছেলে সজিবুল ইসলাম (২১)।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহেদুল কবির।

তিনি বলেন, কোতোয়ালী থানা এলাকার মেরিনার্স রোড থেকে অভিযান চালিয়ে গতকাল বুধবার চোর চক্রের মূলহোতা রিপনকে একটি চোরাই মোটরসাইকেলসহ গ্রেপ্তার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে রিপন জানায়, চোরাই মোটরসাইকেলগুলো কুমিল্লার আব্দুল কাদের জিলানী প্রকাশ অভি ও কক্সবাজারের সজিবুল ইসলামের কাছে বিক্রি করে। পরে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থানা ও নাঙ্গলকোর্ট এলাকায় অভিযান চালিয়ে আব্দুল কাদের জিলানী প্রকাশ অভিকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার কাছ থেকে ৮টি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।

এরপর কক্সবাজারের মহেশখালীতে অভিযান চালিয়ে সজিবুল ইসলাম নামে আরও একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে ৪টি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে।

আসামি রিপনের বিরুদ্ধে চট্টগ্রামের কোতোয়ালী, বাকলিয়া, পাঁচলাইশ, পটিয়া, ফেনী সদর থানা ও কুমিল্লার নাঙ্গলকোর্ট থানায় ৮টি মোটরসাইকেল চুরির মামলা আছে। আব্দুল কাদের জিলানীর বিরুদ্ধে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম ও ফেনীর সোনাগাজী থানায় ৫টি মোটরসাইকেল চুরিসহ মারামারির মামলা আছে বলে জানান ওসি।

চস/স

Latest Posts

spot_imgspot_img

Don't Miss